আমি কেন ঘরে থাকব?

ঢাকা, রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৩ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪১

Akash

আমি কেন ঘরে থাকব?

মো. আলী রেজা ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৪৪ ২৬ মার্চ ২০২০  

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

বিশ্বব্যাপী করোনার যে ভয়াল থাবা তার থেকে বাঁচতে ঘরে থাকার বিকল্প নেই। সুস্থ থাকতে ঘরে থাকা অত্যান্ত জরুরি। সচেতনতামূলক লেখাটি মো. আলী রেজার ফেসবুক পোস্ট থেকে সংগ্রহ করে ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের জন্য প্রকাশ করা হলো। সবাই সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন।


* আমি নিজেকে খুব ভালবাসি। সেই ছোট্টবেলা থেকে সুস্বাস্থ্যের জন্য,  সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য,  শান সৌকতে বেশিদিন এই পৃথিবীতে বাঁচার জন্য কত চেষ্টাই না করছি। আমি তো সুস্থভাবে আরো অনেকদিন বাঁচতে চাই। তাই দীর্ঘ প্রাপ্তির জন্য মাত্র কয়েকদিন বাসায় থাকব, বাইরে বের হব না।

* আমার স্ত্রী, আমার সহধর্মিণী, আমার অর্ধাঙ্গিনী তাকে তো খুব ভালবাসি। তাকে পাওয়ার জন্য কতদিন অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছি। কত সময় ব্যয় করেছি, তার হিসেব নাই। সেই  মেয়েটি শুধু আমার জন্য, হ্যা শুধু আমার জন্য তার প্রানপ্রিয় বাবা- মা, আদরের ভাই -বোনদের ছেড়ে আমার সঙ্গে আছে। কত নিরলসভাবে অক্লান্ত পরিশ্রম করে আমাদের সংসারে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। আমার সন্তানের জন্ম ও লালন পালনের জন্য কতদিনতো ঘরে, হাসপাতালে নিজেকে  আবদ্ধ রেখেছে। কউ, তখনতো সে প্রশ্ন করেনি ‌আমি কেন 'আবদ্ধ থাকব?' তাহলে তার সুস্থতার জন্য, আরো কিছুদিন ভালভাবে একসঙ্গে থাকার জন্য আমি কি মাত্র কয়েকদিন বাসায় থাকতে পারব না? অবশ্যই পারব, বাইরে  যাব না। 

* কত দিনরাত অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছি আমার সন্তানের জন্য। সন্তান একদিন বড় হবে, মানুষের মত মানুষ হবে, আমাদের মুখ উজ্জ্বল করবে। এত পরিশ্রম করছি তাদের ভালোর জন্য, তাদের মংগলের জন্য। তাহলে কেন পারব না। অবশ্যই পারব আমাদের সন্তানের ভালোর জন্য, তাদের  সুস্থতার জন্য  বাসায় থাকতে, বাইরে যাব না।

* আমার মা আমার জন্য দিনরাত কত অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। কত দিনরাত নির্ঘুম কাটিয়েছেন আমার সুস্থতার জন্য। কতদিন আবদ্ধ থেকেছেন বাড়ির ছোট্ট কামরাটির মধ্যে, মফস্বল শহরের হাসপাতালের একটি বেডে, হয়তোবা কখনো মেঝেতে। নিজের সুস্থতার কথা ভুলে যেয়ে আগলে রেখেছেন আমাকে। আজ তিনি বয়সের ভারে ক্লান্ত,  এখনো সন্তানের সুখের কথা চিন্তা করে নিজেকে আবদ্ধ রেখেছেন সেই ছোট্ট কামরাটিতে। তাহলে আমি কেন পারব না সেই মায়ের সুস্থতার জন্য, আরো কয়েকদিন আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য,  আরও কিছুদিন সুমধুর ডাক ‌‘মা’ ডাকার জন্য নিজেকে বাসায় আবদ্ধ রাখতে।  অবশ্যই পারব মাত্র কয়েকদিন বাসায় থাকতে,  বাইরে যাব না। 

* আমার বাবা দিনরাত হাড়ভাঙা পরিশ্রম করেছেন আমাদের ভালোর জন্য, সুস্থতার জন্য, আমাদের মঙ্গলের জন্য। রোদ, বৃষ্টি, ঝড়-ঝাপটা সকল কিছু থেকে আগলে রেখেছেন। তিনিওতো নিজেকে বঞ্চিত করেছেন অনেককিছু থেকে শুধু আমার ভালোর জন্য। আজ তিনি বৃদ্ধ বয়সে উপনিত হয়ে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন। তারওতো সুস্থভাবে আরো কিছুদিন এই পৃথিবীতে বাঁচার ইচ্ছা আছে। আমি কি পারি না তার সুস্থতার জন্য, আরো কিছুদিন সুস্থভাবে বাঁচার জন্য, প্রিয় ডাক ‘বাবা’ ডাকার জন্য নিজেকে বাসায় আবদ্ধ রাখতে। অবশ্যই পারব, পারতে হবে মাত্র কয়েকদিন বাসায় থাকতে, বাইরে যাব না। 

তাই আসুন। মাত্র কয়েকদিন বাসায় নিজ পরিবারের সঙ্গে থাকি। খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হই। পরিবারকে সময় দিই। সময়ের সদ্ব্যবহার করি।

মহান আল্লাহ আমাদের সকলকে হেফাজত করুন। তার অশেষ রহমতের বরকতে আমাদের এই বিপদ থেকে রক্ষা করুন। আমিন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআর