.ঢাকা, শুক্রবার   ২২ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৮ ১৪২৫,   ১৫ রজব ১৪৪০

আমার চেষ্টায় কোনো ত্রুটি ছিল না: খোকন

মেহেদী সোহেল

 প্রকাশিত: ১৫:২৫ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৫:২৫ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

আগামী ২৫ জানুয়ারি বিএফডিসিতে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নির্বাচন। এটিকে ঘিরে বিএফডিসিতে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। চলচ্চিত্র পরিচালকদের পদচারণায় মুখরিত হচ্ছে এ প্রাঙ্গণ।

গত ১০ জানুয়ারি ছিল নির্বাচনে প্রার্থিতা জমা দেয়ার শেষ তারিখ। এ নির্বাচনে ১৯টি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ৪৪ প্রার্থী। পরিচালক সমিতি থেকে জানা যায়, নির্বাচন কমিশন ৭৬টি মনোনয়নপত্র বিক্রি করেছে। তবে জমা পড়েছে ৪৪টি মনোনয়নপত্র। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ আজ (১৩ জানুয়ারি, রোববার)।

এবার দুটি প্যানেল থেকে প্রার্থীরা নির্বাচন করবেন। একটি প্যানেল মুশফিকুর রহমান গুলজা-বদিউল আলম খোকন প্যানেল। অন্যটি বাদল খন্দকার-বজলুর রাশেদ চৌধুরী প্যানেল। এছাড়া স্বতন্ত্রভাবে চার জন পরিচালক নির্বাচন করবেন।

পরিচালক সমিতির নির্বাচন প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির বর্তমান মহাসচিব বদিউল আলম খোকন ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, গত বারের মতো এবারো আমি মহাসচিব পদে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। চলতি মেয়াদে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিবের চেয়ারে বসার পর থেকে আমাদের পরিষদকে সঙ্গে নিয়ে আমি কী বা কতটুকু কাজ করেছি তা আমাদের সমিতির সদস্যরাই ভালো বলতে পারবেন। তবে আমি একতুটু বলতে পারি যে, আমার পরিচালক ভাইদের স্বার্থ রক্ষার জন্য আমি সর্বাত্বক চেষ্টা করেছি। চেষ্টা করেছি চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সবার জন্য কাজ করতে। কতটুকু পেরছি জানি না, তবে আমার চেষ্টায় কোনো ত্রুটি ছিলো না। আমি একই পদে আবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। যদি নির্বাচিত হতে পারি তাহলে অন্য যে কোসো কাজের থেকে দুটি কাজ সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে করব; তার একটি হচ্ছে, ১০০ সিনেমা হলে ডিজিটাল মেশিন বাসানের প্রক্রিয়া অনেকটা এগিয়ে চলছে, সেটা সম্পন্ন করা আর দ্বিতীয়টা হচ্ছে, আরো ১০০ সিনেমা হলে মেশিন বসানোর বিষয়ে সরকারকে রাজি করানো এবং তা সম্পন্ন করা। যদিও এ বিষয়ে আমাদের তথ্যমন্ত্রী মহোদয়ের সঙ্গে এরইমধ্যে কথা হয়েছে, আশা করছি কাজটি আমরা করতে পারব। এছাড়া চলচ্চিত্র প্রদর্শকদের সঙ্গে প্রযোজকদের টিকিট বিক্রির টাকার বিষয়টিতে একটা ভারসাম্য আনার জন্য কাজ করব।

এদিকে নির্বাচনের আগে আসছে ১৮ জানুয়ারি পরিচালক সমিতির সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে জয়ী প্রার্থীরা আগামী ২০১৯-২০২০ মেয়াদে দায়িত্ব পালন করবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই