আমাদের ইতিবাচক থাকতে হবে: মাশরাফি

ঢাকা, বুধবার   ২৬ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ১২ ১৪২৬,   ২১ শাওয়াল ১৪৪০

আমাদের ইতিবাচক থাকতে হবে: মাশরাফি

 প্রকাশিত: ১৭:২৫ ২০ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ২০:৫০ ২০ জুলাই ২০১৮

আলোচনায় মাশরাফি

আলোচনায় মাশরাফি

ওয়ানডে সিরিজ খেলতে এরই মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজে দলের সাথে যোগ দিয়েছেন মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা। টেস্ট সিরিজে ব্যর্থতার পর মাশরাফির নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়াতে চায় টাইগাররা। মাশরাফির লক্ষ্যও টেস্টের বিপর্যয়কে পেছনে ফেলে দলকে ইতিবাচক ধারায় নিয়ে আসা। 

মঙ্গলবার ক্রিকবাজ টাইগার অধিনায়কের একটি সাক্ষাৎকার নেয়। এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু অংশ ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের সামনে তুলে ধরা হল।
 
শুরুতেই আসে স্ত্রীর অসুস্থতা প্রসঙ্গ। এ বিষয়ে মাশরাফি ইতিবাচক ছিলেন বলেই জানিয়েছেন তিনি। স্ত্রী কিংবা পরিবারের অসুস্থতার মধ্যেও খেলা চালিয়ে যেতে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছেন তিনি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর মানে স্বভাবতই ২০০৯ সালের প্রসঙ্গটি আসবে। সেবার ইনজুরিতে পড়েছিলেন মাশরাফি। সেই কথা উঠতে তিনি জানান, এটা সত্য যে অনেকে ভেবেছিল আমি সেরাটা দিতে পারব না। তবে তা নিয়ে কোন অস্বস্তি নেই। ওটা নিয়ে আমি অখুশি কিংবা ভীত নই। মূল বিষয় হল আমি বাস্তবতা মেনে নিয়েছি। আমি অনেক প্রত্যাশা নিয়ে ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে এসেছিলাম। কিন্তু ইনজুরিতে পড়ে তার কিছুই পূরণ হয়নি। এসব নিয়ে ভাবা গুরুত্বহীন কিন্তু আপনি সেটা আপনার মন থেকে মুছে ফেলতে পারবেন না।

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের আগেও একই অবস্থায় পড়েছিলেন। টেস্টে হেরে দল টালমাটাল ছিল। আপনাকে আত্মবিশ্বাসের ঘাটতিতে থাকা এক দল গিয়ে সামলাতে হয়েছিল। অধিনায়ক হিসেবে এমন পরিস্থিতিতে পড়লে কি ধরনের কাজ করতে হয়?

এাশরাফি: এই পর্যায়ে প্রস্তুতি ছাড়া কেউ মাঠে নামে না। আমি মনে করি, তারা তাদের সেরাটা দিয়েই চেষ্টা করেছে, কিন্তু তা কাজ করেনি। এভাবে হারলে দল মানসিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ে এবং আমার প্রাথমিক কাজ হচ্ছে দলকে মানসিকভাবে চাঙা করা। আমি মনে করি না যে আমাদের স্কিলের অভাব আছে। আমাদের শুধু তা কাজে লাগাতে হবে। আমাদের মানসিকভাবে শক্ত থাকতে হবে। আমাদের ইতিবাচক থাকতে হবে। 

কারণ আমরা টেস্টের হতাশা মাথায় রেখে এগুতে পারব না। ওয়ানডে সিরিজ নিয়ে আমাদের বড় প্রত্যাশা আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/সালি