আমদানি ও উৎপাদন শুল্ক অব্যাহতির প্রস্তাব

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৩ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৬,   ১৮ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

আমদানি ও উৎপাদন শুল্ক অব্যাহতির প্রস্তাব

 প্রকাশিত: ১৪:৫৭ ৭ জুন ২০১৮  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কৃষি, শিল্প, ভারী প্রকৌশল শিল্প, টেক্সটাইল এবং রপ্তানি খাতের ন্যায্য স্বার্থ সংরক্ষণ এবং দেশিয় শিল্প বিকাশ ও প্রতিরক্ষণে কিছু পণ্য ও সেবার বিভিন্ন পর্যায়ে নতুনভাবে অব্যাহতি দেয়া বা অব্যাহতির মেয়াদ বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে এসব প্রস্তাবনা তুলে ধরনের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

আমদানি ও উৎপাদন শুল্ক অব্যাহতির প্রস্তাব জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, নাগরিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষাকে গুরুত্ব দিয়ে ক্যান্সার ও কিডনী জাতীয় রোগের প্রতিষেধক হিসাবে (আর্থ্রোপোইটিন ) নামীয় ঔষধকে আমদানি পর্যায়ে মূসক অব্যাহতি প্রদানের সুপারিশ করছি।

দরিদ্র ও শ্রমজীবী মানুষেরা প্রতি কেজি ১০০ (একশত) টাকা মূল্যমান পর্যন্ত পাউরুটি ও বনরুটি, হাতে তৈরি বিস্কুট ও হাতে তৈরি কেক (পার্টিকেক ব্যতীত) খেয়ে থাকেন। তাই প্রতি কেজি ১০০ (একশত) টাকা মূল্যমান পর্যন্ত পাউরুটি, বনরুটি, হাতে তৈরি বিস্কুট এবং ১৫০ (একশত পঞ্চাশ) টাকা পর্যন্ত হাতে তৈরি কেক (পার্টিকেক ব্যতীত) এর উৎপাদন মূসক অব্যাহতি সুবিধা দেয়ার প্রস্তাব করছি।

দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠী প্লাস্টিক ও রাবারের তৈরি হাওয়াই চপ্পল ব্যবহার করেন। এ পণ্যটি দরিদ্র মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখা ও প্লাস্টিক রিসাইক্লিং শিল্প বিকাশের মাধ্যমে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় প্লাস্টিক ও রাবারের তৈরি হাওয়াই চপ্পল ও পাদুকার উপর (১৫০ টাকা মূল্য পর্যন্ত অনপনীয় কালিতে মুদ্রিত/খোদাইকৃত থাকার শর্তে) এর উৎপাদনে বিদ্যমান ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা দেয়ার প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী।

ডেইলি বাংলাদেশ/ এলকে

Best Electronics