Alexa আবর্জনায় ম্লান ঘিওর হাটের ঐতিহ্য

ঢাকা, সোমবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ১১ ১৪২৬,   ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

আবর্জনায় ম্লান ঘিওর হাটের ঐতিহ্য

ঘিওর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৬:২৬ ২০ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৪:০৩ ২২ ডিসেম্বর ২০১৮

ডেইলি বাংলাদেশ

ডেইলি বাংলাদেশ

বিপর্যয়ের মুখে মানিকগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ঘিওর উপজেলার হাট বাজারের পরিবেশ। ময়লা পচা ও দুর্গন্ধের জন্য বাজারে চলাচল করা কঠিন হয়ে পড়েছে। হাট বাজার থেকে প্রতিবছর লক্ষাধিক টাকার রাজস্ব আদায় হলেও দীর্ঘদিন উন্নয়ন না হওয়ায় ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীসহ জনসাধারণ।

ঘিওর পুরাতন গরু হাট, কাঠপট্টি, মাছবাজার, গুড় হাট, মিষ্টিপট্টি, বাসস্ট্যান্ড, ধানহাট, ভুসিপট্টি ও মুক্তিযোদ্ধা ভবনের সামনের সড়কগুলো অল্প বৃষ্টিতেই ভাসতে থাকে।

এতে সব ধরনের যানবাহন চলাচলও বন্ধ হয়ে যায়। পানিতে ভাসতে থাকে ময়লা পঁচা ও দুর্গন্ধযুক্ত আর্বজনা। বাজারের ব্যবসায়ী দর্শনাথী ও হাজার হাজার পথচারীরা নাকে রুমাল চেপে আসা যাওয়া করে।

১৯৯৫ সালে ঘিওর ভুসিপট্টি, মেইনরোড, ধানহাট এবং ২০০২ সালে ঘিওর পুরাতন গরু হাট, বাসস্ট্যান্ডে পানি নিস্কাশনের জন্য কয়েকটি ড্রেন নির্মিত হয়। কিন্তু অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই ড্রেনগুলো ভরাট হয়ে ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়ে। একাধিক বার সংস্কার করলেও বাজারের ব্যবসায়ীদের কোন উপকারে আসেনি।

ঘিওর আনসার ভিডিপি ক্লাবের সামনে ময়লা আবর্জনার পাহাড় গড়ে উঠেছে। নেই কোনো ডাষ্টবিন। বিভিন্ন দোকানের পাশে, রাস্তার মাঝখানে জড়ো করে রাখা হয়েছে ময়লা আবর্জনার স্তূপ। প্রচণ্ড দুর্গন্ধে অস্বস্তিতে পড়েছে বাজার ব্যবসায়ীরা। তবে এতে প্রশাসনের কোন রকম ভূমিকা নেই।

এ দিকে ঘিওর বাজারে পর্যাপ্ত টয়লেট ও টিউবওয়েল নেই। ঘিওর বাসস্ট্যান্ড ও মহিলা মার্কেটে টয়লেট থাকলেও দুর্গন্ধের কারণ তাও ব্যবহার করা যায় না। দীর্ঘদিন যাবৎ বাজারে বৈদ্যুতিক খুটিতে বাতি নেই। বাজারের সড়কগুলো ইট সোলিং অবস্থায় পড়ে আছে। অনেক রাস্তার ইট উঠে যাতায়াতের মারাত্মক অসুবিধা হচ্ছে।

তবে বিশিষ্টজনদের ধারণা, ঐতিহ্যবাহী ঘিওর উপজেলাকে অবিলম্বে পৌরসভায় উন্নীত করা প্রয়োজন। তাহলে সব ধরনের উন্নয়ন করা সম্ভব।

ঘিওর বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন মুসা বলেন, বাজারে ড্রেন, টিউবওয়েল, প্রস্রাবখানা, রাস্তাঘাটের উন্নয়নের জন্য প্রশাসনের সঙ্গে আলাপ করা হয়েছে। তবে বাজারের ময়লা আর্বজনা অপসারণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তাছাড়া একাধিকবার বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলেও বাজারের কোন উন্নয়ন হয়নি।

এলাকার সুশীল সমাজ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দসহ অভি মহল দ্রুত ঘিওর বাজার উন্নয়নের জন্য কর্তপক্ষের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।                                                             

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস