আপনি কি সত্যিই সুস্থ?

ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৬ ১৪২৬,   ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

আপনি কি সত্যিই সুস্থ?

 প্রকাশিত: ১৩:০৩ ১৯ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ১৩:০৩ ১৯ জুলাই ২০১৮

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আমাদের প্রত্যেকের নিত্যদিনের সময় কাটে ব্যস্ততার মধ্য দিয়ে। শত কাজের ব্যস্ততায় আমরা নিজেদের স্বাস্থ্যের গুরুত্ব বেমালুম ভুলে বসে থাকি। অথচ শরীর সুস্থ না থাকলে শত ব্যস্ততাও আমাদের কাজ আটকে বসে থাকবে। ঠিক সে কারণে নিজের কাজের প্রতি যত্নের একটা অংশ হিসেবেও অন্তত নিজের স্বাস্থ্যের প্রতি আমাদের যথাযথ খেয়াল নেয়া উচিত। আমাদের শরীরে এমন কিছু নিরব লক্ষণ দেখা দিতে পারে, যেগুলো ইঙ্গিত করে আমাদের স্বাস্থ্য ঠিক কতোটা ভালো আছে।

আয়রন শূন্যতা

আপনার শরীরে যখন মিনারেল আয়রনের অভাব দেখা দিতে শুরু করবে তখন আপনি টের পাবেন আপনার শরীর অনেক দুর্বল হয়ে পড়েছে। সেই সাথে আপনার গায়ের রঙ ফ্যাকাসে হয়ে উঠছে। সবচেয়ে বড় ইঙ্গিত আপনি যেটি টের পাবেন, সেটি হলো আপনার হাত অথবা পায়ের নখ ভেঙে ভেঙে আসতে শুরু করবে। মহিলাদের ঘন ঘন রজঃস্রাব সংক্রান্ত এবং অতিরিক্ত ব্লিডিং একটি মারাত্মক ঝুঁকির দিকে নিয়ে যেতে পারে। যেটির একমাত্র কারণ নির্দেশ করে শরীরে আয়রনের অভাবের।

নিরাময়ের উপায় :

ঋতুজড় পূর্বের মহিলাদের জন্য প্রতিদিন ১৮ মিলিগ্রাম আয়রন এবং পূর্ণ বয়স্ক মহিলাদের জন্য ৮ মিলিগ্রাম আয়রন শরীরে থাকা উচিত। আমাদের শরীর এনিম্যাল বেসড আয়রন নিতে সবচেয়ে বেশি গ্রহণ করতে পারে। যেমন, মাংস, সাগরীয় মাছ ইত্যাদি। অথবা নিরামিষভোজী দের জন্য আয়রনের উৎস হতে পারে পালংশাক জাতীয় সবুজ শাক, ছোলা ইত্যাদি ভিটামিন সি যুক্ত খাদ্য যেগুলো দেহ সহজে শোষণ করে নিতে পারে।

হাই ব্লাড প্রেশার

যদি আপনার প্রেশার হঠাৎ করে বাড়তে শুরু করে তাহলে বুঝে নিন আপনার শরীরে ভিটামিন ডি'র যথেষ্ট অভাব রয়েছে। সিডিসি 'র গবেষণা অনুযায়ী মাত্র ৩% নন স্পেইনদেশীয় শেতাঙ্গ, ৩১% নন স্পেইনদেশীয় নিগ্রো এবং ১২% মেক্সিকান আমেরিকান দের এই ভিটামিনের অভাবে এই রোগ দেখা যায়।

নিরাময়ের উপায় :

বয়স্কদের প্রতিদিন ৬০০ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিটে ভিটামিন ডি খাওয়া প্রয়োজন। কিন্তু এই পুষ্টিকর ভিটামিন টি খুব কম পরিমাণ খাদ্যেই পাওয়া যায়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু খাদ্য হলো, এক ধরণের সামুদ্রিক মাছ যেটির নাম সোর্ডফিস, অরেঞ্জ, মাশরুম ইত্যাদি। এ ছাড়া বয়স একটু বেশি হলে নিতে পারেন ভিটামিন ডি এর সাপ্লিমেন্ট। ভিটামিন ডি ৩ নেয়াই সেক্ষেত্রে ভালো হবে।

লো ব্লাড প্রেশার

এটি হওয়ার অনেকগুলো কারণের মধ্যে একটি কারণ হলো লক্ষ্যণীয় ভাবে ভিটামিন বি-১২ এর অভাব। পানিতে দ্রবণীয় এই ভিটামিনের অভাবে নিউরোলজিকাল সিস্টেমে আক্রমণ হতে পারে। যেটি শরীরে যথাসময়ে রক্ত সরবরাহ করাতে বাধা সৃষ্টি করে। যার ফলে ব্লাড প্রেশার কমতে শুরু করে। এর আরো কিছু লক্ষণ হলো পেশিতে ব্যথা অনুভূত হওয়া, হাটার চলনে অসামাল হওয়া ইত্যাদি।

নিরাময়ের উপায় :

বয়স্কদের প্রতিদিন ২.৪ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন বি-১২ শরীরে থাকা উচিত। এই ভিটামিনের কিছু উৎস হলো মাংস, দুধ, ডিম ইত্যাদি। যদি প্রতিদিনকার রুটিনবাঁধা নিয়ম অনুযায়ী এই ভিটামিন যুক্ত খাবার খেতে পারে, তাহলে খুব সহজে এই রোগ থেকে নিরাময়ের উপায় পাওয়া যেতে পারে।

অল্পতে ক্লান্তি অনুভব হওয়া

এটি হতে পারে শরীরে ভিটামিন সি না থাকার একটি লক্ষণ। বিশেষ করে যারা ধূমপান করেন , অথবা পরোক্ষভাবে ধূমপানের স্বীকার, তাদের দেহে অবসাদ বেশি লক্ষ করা যায়, কারণ সাধারণ মানুষদের তুলনায় তাদের দেহে ভিটামিন সি এর অভাবের সম্ভাবনা প্রায় তিন গুণ বেশি।

নিরাময়ের উপায়

নারীদের প্রতিদিন ৭৫ মিলিগ্রাম ও পুরুষদের ৯০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি এর দরকার হয়। ধূমপায়ীদের প্রয়োজন অতিরিক্ত ৩৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি। কিভাবে পাবেন? লেবু,  কমলালেবু, আনারস, টমেটো, পেয়ারা , পেঁপে এসবগুলোই ভিটামিন সি তে সমৃদ্ধ।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ