আপনার এ নীরবতার মূল্য অনেক চড়া: সু চিকে ডেসমন্ড টুটু

ঢাকা, রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৭,   ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

আপনার এ নীরবতার মূল্য অনেক চড়া: সু চিকে ডেসমন্ড টুটু

 প্রকাশিত: ১২:৪৩ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ১৮:২৫ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে সরব হতে মিয়ানমারের ডি ফ্যাক্টো সরকারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি’র প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদবিরোধী নেতা ও ধর্মযাজক ডেসমন্ড টুটু। অং সান সু চিকে উদ্দেশ্য করে সামাজিক মাধ্যমে পোস্টকৃত এক খোলা চিঠিতে এ আহ্বান জানানো হয়। টুটু প্রশ্ন তুলেছেন, নীরবতার মধ্য দিয়ে সু চি তার দেশের উচ্চ পদে আসীন হওয়ার রাজনৈতিক মূল্য চুকাচ্ছেন কিনা। যদি তাই হয়, তবে সে মূল্য খুব চড়া বলে সু চিকে সতর্ক করেছেন তিনি। পাশাপাশি রোহিঙ্গা নিপীড়ন বন্ধে তৎপর হওয়ার জন্য সু চি’র প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এ নোবেলজয়ী নেতা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, চিঠিতে টুটু সু চিকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, তিনি তাকে অত্যন্ত প্রিয় এক বোনের মতো দেখেন, তার প্রশংসা করে থাকেন। কিন্তু রাখাইন রাজ্যে চলমান `সহিংসতা` ও `নিধন যজ্ঞ` তাকে এ প্রিয় মানুষটির বিরুদ্ধে কথা বলতে বাধ্য করেছে। চিঠিতে ডেসমন্ড টুটু লিখেছেন, ‘বেশ কয়েক বছর আমার ডেস্কের ওপর আপনার একটি ছবি ছিল। ওই ছবি আমাকে মনে করিয়ে দিতো, মিয়ানমারের জনগণের প্রতি অঙ্গীকার ও ভালোবাসা থাকার কারণে আপনাকে কতটা অবিচার সহ্য করতে হয়েছে এবং ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। আপনি ন্যায়পরায়ণতার প্রতীক হয়ে উঠেছিলেন।`

৮৫ বছর বয়সী টুটু সু চিকে আরও বলেন, “জনজীবনে আপনার উত্থান হওয়ার পর রোহিঙ্গা নিপীড়ন প্রশ্নে আমাদের উদ্বেগ প্রশমিত হয়েছিল। কিন্তু এখনও রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ‘জাতিগত নিধন যজ্ঞ’ বজায় রয়েছে বলে অভিযোগ করছেন কেউ কেউ, আবার অনেকের কাছে তা ‘ধীর গতির গণহত্যা’। সম্প্রতি সেই সহিংসতা আরও বেড়েছে। ন্যায়পরায়ণতার প্রতীক হিসেবে কোনও ব্যক্তি দেশ পরিচালনা করতে গেলে এ বিষয়গুলো তার কাছে অসঙ্গতিপূর্ণ মনে হওয়ার কথা। এমন যদি হয় যে আপনার নীরবতা হলো মিয়ানমারের উচ্চ পদে আসীন হওয়ার রাজনৈতিক মূল্য চুকানো, তবে নিশ্চিতভাবে বলব এ মূল্যটা খুব চড়া।”

টুটু আরও বলেন, সরকারি বিষয়ে কথা না বলার অঙ্গীকার করেছিলেন তিনি, কিন্তু রোহিঙ্গা নিপীড়নের ঘটনায় চরম উদ্বিগ্ন হয়ে মুখ খুলতে বাধ্য হয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আর কে