আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদার মুক্তি সম্ভব নয়: তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, রোববার   ১৬ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৩ ১৪২৬,   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদার মুক্তি সম্ভব নয়: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১৭ ২ জুন ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ঈদের আগে বা পরে কখনোই আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়ার মুক্তি সম্ভব নয়, শাস্তিপ্রাপ্ত অপরাধীর বিষয়ে আদালতই সিদ্ধান্ত দেবে, সরকারের কিছু করার নেই।

রোববার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে প্রচার উপকমিটির সভায় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

ঈদের পর বিএনপির আন্দোলন ও খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গত ১০ বছর ধরে ঈদের আগে-পরে, গরমের পরে, শীতের আগে; এমন বিভিন্ন সময়ে আন্দোলনের কথা বলে আসছে বিএনপি। কখন তাদের আন্দোলন হবে, তা কেউ বলতে পারে না। এসব বলে বিএনপি নিজেদের আর হাস্যকর দল হিসেবে পরিচিত না করার পরামর্শ দেন তিনি।

এ কে খন্দকার তার লেখা গ্রন্থে ভুলের জন্য জাতি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আত্মার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন, তার এ বোধোদয়ের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন হাছান মাহমুদ।

তবে ভুলের জন্য এ কে খন্দকার যাদের দায়ি করেছেন সে বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তার অভিযোগ গুরুতর। তিনি আদালতে উত্থাপনের মাধ্যমেই দায়িদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারেন।

প্রধানমন্ত্রী বিদেশ সফরে থাকলেও নিয়মিত দেশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় সফরে জাপান ও ওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে দেশের বাইরে থাকলেও নিয়মিত মন্ত্রিসভা সদস্য ও সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে দেশের সব খবর রাখছেন ও প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন।

তিনি বলেন, পণ্যের যথেষ্ট মজুদ ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলাপের মাধ্যমে এবার রমজানে পণ্যমূল্য বৃদ্ধি না পাওয়া, খাদ্যে ভেজালরোধ ও ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে সরকারের সক্ষমতা প্রশংসাযোগ্য।

পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে সব গণমাধ্যমকর্মীসহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, গত ১০ বছরে যোগাযোগ ক্ষেত্রে বিপুল পরিমাণ উন্নয়ন করেছে সরকার। ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করায় এবার ঈদে মানুষ স্বস্তিতে ঘরে ফিরছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএইচআর/ আরএইচ