আধঘণ্টার ব্যবধানে মরল ১১ গরু, করোনা আতঙ্ক

ঢাকা, রোববার   ৩১ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৮ ১৪২৭,   ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

আধঘণ্টার ব্যবধানে মরল ১১ গরু, করোনা আতঙ্ক

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪৭ ২৯ মার্চ ২০২০  

মৃত গরুগুলো (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

মৃত গরুগুলো (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে পানি পানে আধঘণ্টার ব্যবধানে ১১টি গরুর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় করোনা আতঙ্ক দেখা দেয়।

রেববার সকালে উপজেলার ভাটিপাড়া ইউপির সুতারগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা, মৎস্য কর্মকর্তা ও থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পুকুরের পানি সংগ্রহ করেন।

ভুক্তভোগীরা হলেন- ওই গ্রামের দিগেন্দ্র দাস, দিলিপ দাস, শিশির মোহন, তিলক মোহন, হরিলাল দাস ও রায় মোহন দাস।

স্থানীয়রা জানায়, সরকারি জায়গার ডোবা দখল করে মাছ চাষ করছেন পার্শ্ববর্তী চাতলপাড় গ্রামের আনিস উল্লার ছেলে আবু সালাম। কিছুদিন আগে সড়কে মাটি ভরাটের পর একটি গর্ত হয়। সেখানে বৃষ্টির পানি জমে পুকুরের মতো হলে দখলে নিয়ে মাছ চাষের জন্য শনিবার বিষ দেন তিনি। রোববার সকালে গ্রামের তিন রাখাল বিভিন্ন মালিকের প্রায় অর্ধশতাধিক গরু নিয়ে ঘাস খাওয়াতে মাঠে যাচ্ছিলেন। এ সময় বিষ দেয়া পুকুরের পানি পান করে কয়েকটি গরু। এর কিছুক্ষণ পরেই একে একে ১১টি গরু মারা যায়।

আবু সালাম বলেন, গ্রামের পঞ্চায়েতের অনুমতি নিয়েই মাছের পোনা উৎপাদনের জন্য চুন দেয়া হয়। কোনো ধরনের বিষ দেয়া হয়নি।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. এফএম বাবরা হ্যামলিন বলেন, গরুগুলো কী কারণে মারা গেছে তা সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। বিষক্রিয়ায় মারা গেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

দিরাই থানার ওসি কেএম নজরুল জানান, মৃত্যুর ধরণ এক রকম হওয়ায় দুইটি গরু ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে করোনাভাইরাসে হাওরে একের পর এক গরু মারা যাচ্ছে বলে গ্রামে ছড়িয়ে পড়ে। এতে শিশুদের ঘরে আটকে রেখে দরজা-জানালা বন্ধ করে দেন গ্রামের নারীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর