Alexa আদিতমারী হাসপাতালের দরপত্রে অনিয়ম, তদন্তে কমিটি গঠন

ঢাকা, বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৫ ১৪২৬,   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

আদিতমারী হাসপাতালের দরপত্রে অনিয়ম, তদন্তে কমিটি গঠন

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৫১ ২ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ২০:২২ ২ অক্টোবর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

লালমনিরহাটের আদিতমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দরপত্রে অনিয়মের অভিযোগে দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে ডেইলি বাংলাদেশকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন আদিতমারী স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মেশকাতুল আবেদ।

তিনি জানান, আদিতমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য রোগীর পথ্য, স্টেশনারি ও ধুপী কাজে ঠিকাদার নিয়োগ করতে দরপত্র আহবান করা হয়। দরপত্র অনুযায়ী ১৯ আগস্ট শেষ সময়ে তিনটি গ্রুপে ২০টি দরপত্র বিক্রি হয়। ২০ আগস্ট ১৩টি দরপত্র দাখিল হলে পরদিন দরপত্র যাচাই-বাচাই কমিটি চারটি দরপত্র বাতিল করে ৯টিকে বৈধতা ঘোষণা দেয়। কিন্তু বুধবার সকালে অফিস আদেশ না দিয়ে মৌখিক আদেশ দিয়ে পুরাতন ঠিকাদারকে পথ্য সরবরাহ করতে নিষেধ করেন হাসপাতালের প্রধান অফিস সহকারী রফিকুল ইসলাম। আর নতুন ঠিকাদার আব্দুর রাজ্জাক লেবুকে পথ্য সরবরাহ করতে মৌখিক নির্দেশ দেন তিনি। অফিস আদেশ ছাড়া নিজের ইচ্ছায় ঠিকাদার নিয়োগ করায় ক্ষিপ্ত হন স্থানীয় ঠিকাদাররা। দরপত্রের ১১ অনুচ্ছেদ অমান্য করে নতুন ঠিকাদার নিয়োগ ও অফিস সহকারী স্বেচ্ছাচারী মৌখিক আদেশের বিষয় তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নিতে লিখিত অভিযোগ দেন তিন ঠিকাদার। তিনটি অভিযোগ সিভিল সার্জনকে পাঠায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ২৪ সেপ্টেম্বর অভিযোগ তদন্তে দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন সিভিল সার্জন। একইসঙ্গে তদন্ত কমিটিকে সাত কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত করে সুপারিশসহ সিভিল সার্জনকে পাঠাতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ডা. মেশকাতুল আবেদ আরো জানান, প্রধান অফিস সহকারী তাকেs না জানিয়ে মৌখিকভাবে কাজের নির্দেশ দেয়া বিধিসম্মত নয়। তাই দরপত্র আপাতত স্থগিত করে পুরাতন ঠিকাদারকে কাজের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ