.ঢাকা, শনিবার   ২৩ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৯ ১৪২৫,   ১৬ রজব ১৪৪০

আদরের পোষ্যটি ভালো আছে তো?

 প্রকাশিত: ২১:০২ ২১ জুলাই ২০১৭  

আপনার পোষ্যটি বাড়ির অন্যদের মতই আদরের এবং গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। তাই বর্ষায় নিজেদের সুস্থতার পাশাপাশি পোষ্যটিরও যত্ন নিন একটু বেশি। আমাদের মতোন ওরাও ঠাণ্ডা, সর্দি-কাশি, পেটের সমস্যাতে ভোগে। তবে জেনে নেওয়া যাক বর্ষায় কীভাবে নিতে হবে আদরের পোষ্যটির যত্ন। সবার আগে, গায়ে যেন পোকা বা ইনফেকশন না হয় তাই বর্ষার শুরুতেই পোষ্যকে প্রয়োজনীয় ভ্যাকসিন দিতে হবে। তবে এখনও দেয়া না হলে দ্রুত ভ্যাকসিন দিন। যে সব পোষ্যরা ঘরের বাইরে থাকে তারা বৃষ্টির পানিতে ভিজে যায় খুব সহজে। বৃষ্টির পানি লোমে আটকে থাকে। যা আপনার পোষা প্রাণীটির গায়ে ব্যাকটেরিয়ার জন্ম দিয়ে ইনফেকশন ছাড়াতে পারে। যা থেকে তার হতে পারে সর্দি-কাশিসহ নিউমোনিয়া। তাই পোষ্যটি যেন বৃষ্টিতে ভিজে না যায় তা খেয়াল করুন। বৃষ্টিতে না ভিজলেও ঘরের প্রাণীটিকে গোসল করাতে হবে নিয়মিত। অন্য সময়ের মত কয়েকদিন পর পর না করে প্রতিদিন গোসল করাতে হবে বর্ষায়। আর শ্যাম্পু করানোর ক্ষেত্রে তা হতে হবে অ্যান্টিসেপটিক শ্যাম্পু। তাহলে শরীরে র‍্যাশ বা চুলকানি হবে না। খেয়াল করে দেখেছেন নিশ্চয় খুব জোড়ে বাতাস বইলে বা বিদ্যুৎ চমকালে ছটফট করতে থাকা পোষা প্রাণীটি। জবুথুবু হয়ে ঘরের কোণে লুকিয়ে পড়ে। কারণ সে ভয় পায়। অনেক সময় ভয়ের ফলে শরীর কাঁপতে থাকে, তখন সে আত্মরক্ষার তাগিদে কামড়েও দিতে পারে। তাই চিকিত্সকের পরামর্শ নিয়ে পোষা প্রাণীকে অ্যান্টি-অ্যাংজাইটি ড্রাগ দিতে পারেন। পাশাপাশি ভয় কাটিয়ে তুলতে তার গায়ে হাত বুলান, তাকে আদর করুন। এতো গেল বাহিরের যত্ন, এখন যত্ন শুরু করুন অভ্যন্তরীণভাবে। বর্ষায় খাবার ও পানি থেকে সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই এই সময় বাড়িতে তৈরি স্বাস্থ্যকর খাবারের পাশাপাশি তাকে দিন ফোটানো পানি। তারপরও যদি কোন কারণে যদি পোষ্যর ইনফেকশন দেখা দেয় তাহলে তাকে যে সব খাবার খাওয়াতে পারেন তা হল- দই দইয়ে থাকা প্রোবায়োটিক উপাদান পোষ্যের পেট ঠাণ্ড রেখে ইনফেকশন প্রতিকার করবে। দইয়ের পরিমাণ ডাক্তারের সঙ্গে আলোচনা করে নিশ্চিত করুন। অ্যাপল সিডার ভিনিগার তুলতুলে পোষ্যটির গায়ে বেশ চুলকানি হয়েছে? তাহলে তার গায়ে স্প্রে করতে পারেন অ্যাপল সিডার ভিনিগার। সমপরিমাণ অ্যাপল সিডার ভিনিগারের সঙ্গে পানি মিশিয়ে সারা শরীরে স্প্রে করে দেখুন চুলকানি কমে যাচ্ছে। চাইলে নিমপাতা ফুটিয়ে পানিও স্প্রে করতে পারেন। মনে করে পানি ঠাণ্ডা করে নিন। নিম প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপটিক যা ত্বকের ইনফেকশন ও চুলকুনি থেকে আরাম দেবে। নারকেল তেল নারকেল তেলের মধ্যে থাকা ফ্যাট পোষ্যের ত্বক ময়শ্চারাইজড রেখে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়। তাই পোষ্যের খাবারে মেশাতে পারেন নারকেল তেল। পোষ্যর যত্নে যে কোন উপায় মেনে নেওয়ার আগে ডাক্তারের সঙ্গে অবশ্যই পরামর্শ করে নিবেন। ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই