Alexa আতপ চাল কিনতে ক্রেতাদের বাধ্য করছেন ডিলাররা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ২ ১৪২৬,   ১৭ সফর ১৪৪১

Akash

আতপ চাল কিনতে ক্রেতাদের বাধ্য করছেন ডিলাররা

 প্রকাশিত: ১৮:০৭ ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ২০:২৩ ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭

খোলাবাজারে আতপ চালের বিক্রি বাড়াতে ডিলাররা ক্রেতাদের বাধ্য করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ক্রেতারা আটা চাইলে সঙ্গে চাল নিতেও বাধ্য করা হচ্ছে তাদের। পরপর দু’দিন মঙ্গল ও বুধবার ‘ট্রাক সেল’কর্মীদের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ করেছেন ক্রেতারা। তবে ডিলারদের পক্ষ থেকে এসব অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বৃষ্টির মধ্যে বাংলামোটর-কাঁঠালবগান ‘ট্রাক সেলে’র সামনে আব্দুল জব্বার খান দাঁড়িয়ে ছিলেন আটা কেনার জন্য। চাল বা আটা কোনটাই না কিনে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। দাঁড়িয়ে থাকার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘চাল না নিলে আটা দেওয়া হচ্ছে না।’ এছাড়াও কাঁঠালবাগানের জাহানারা ও আব্দুস সালামসহ অনেকেই জানান আটা চাইলে তাদেরকে প্রথমে আতপ চাল নিতে বলা হয়েছে।

এর আগে, মঙ্গলবার পান্থপথে খোলাবাজারে আটা কিনতে আসা আমেনা বেগমও একই অভিযোগ করেন। ‘ট্রাক সেলের’ কর্মীরা শেষ পর্যন্ত ৭৩ বছর বয়সী আমেনা বেগমকে তিন কেজি আতপ চাল কিনতে বাধ্য করেন।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বাংলামোটর-কাঁঠালবাগানের ট্রাকসেল কর্মী সাইদ বিন কাওসার। তিনি বলেন, ‘বিষয়টি ঠিক নয়। তবে কেউ সামান্য চাল নিয়ে ব্যাগ চাইলে তাকে পাঁচ কেজি নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। আটা চাইলে জোর করে কাউকে আতপ চাল দেওয়া হয়নি।’

তবে আতপ চাল নেওয়ার জন্য ক্রেতাদের অনুরোধ করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আতপ চাল হলেও চাল ভালো বলেই অনুরোধ করছি। কেউ নিলে নিলো, না নিলে না নিলো।’

খোলাবাজারে চাল-আটা বিক্রির চতুর্থদিন বুধবারও (২০ সেপ্টেম্বর) বৃষ্টির কারণে ক্রেতাদের উপস্থিতি ছিল খুবই কম। তবে বৃষ্টি শেষ হলে ক্রেতারা আসতে থাকেন। আগের তিন দিনের চেয়ে এদিন ক্রেতাও বেশি এসেছেন। বিকাল তিনটার দিকে পান্থপথের ট্রাক সেলে সামান্য দু-এক বস্তা চাল দেখা গেছে। আটা শেষ হলেও চাল বিক্রির জন্য অপেক্ষা করছেন ট্রাক সেলকর্মীরা।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় সরকার গত রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) থেকে খোলাবাজারে আতপ চাল প্রতিকেজি ৩০ টাকা ও আটা প্রতিকেজি ১৭ টাকা দরে বিক্রি শুরু করে। ঢাকায় ১২০টিসহ সারাদেশে ৬২৭টি ট্রাকে করে এমএসের চাল বিক্রি শুরু করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আর কে