আজ সাতক্ষীরা মুক্ত দিবস

ঢাকা, বুধবার   ২২ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪২৬,   ১৭ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

আজ সাতক্ষীরা মুক্ত দিবস

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১২:২৯ ৭ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১২:২৯ ৭ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

আজ ৭ ডিসেম্বর সাতক্ষীরা মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে সাতক্ষীরার দামাল ছেলেরা থ্রি নট থ্রি আর এসএলআরের ফাঁকা গুলি ছুড়তে ছুড়তে সাতক্ষীরা শহরে প্রবেশ করেন। ওড়ানো হয় স্বাধীন বাংলার পতাকা।

১৯৭১ সালের ২ মার্চ সাতক্ষীরা শহরে পাকিস্তান বিরোধী মিছিলে রাজাকাররা গুলি করলে শহীদ হন আব্দুর রাজ্জাক। এরপরই গর্জে উঠে রুখে দাঁড়ায় সাতক্ষীরার দামাল ছেলেরা। তারা যোগ দেয় মহান মুক্তিযুদ্ধে। মুক্তিযুদ্ধের খরচ বহনের জন্য ব্যাংক থেকে টাকা ও অলঙ্কার লুট এবং অস্ত্র লুটের দিয়ে শুরু করেন মুক্তিযুদ্ধ। 

৮ম ও ৯ম সেক্টরের অধীনে ভারতের বিভিন্ন এলাকায় ট্রেনিং শেষে ২৭ মে জেলার ভোমরা সীমান্তে প্রথম সম্মুখ যুদ্ধ শুরু হয়। এ সময় দুই শতাধিক পাকিস্তানি সেনা নিহত হয়। ১৭ ঘণ্টাব্যাপী এ যুদ্ধে শহীদ হন তিনজন মুক্তিযোদ্ধা। আহত হন আরো দুজন মুক্তিযোদ্ধা। এরপর থেমে থেমে চলতে থাকে জেলার বিভিন্ন এলাকায় মুক্তিযোদ্ধাদের গুপ্ত হামলা। 

এসব যুদ্ধের মধ্যে ভোমরার যুদ্ধ, টাউন শ্রীপুর যুদ্ধ, বৈকারী যুদ্ধ, খানজিয়া যুদ্ধ উল্লেখযোগ্য। সেসব যুদ্ধে শহীদ হন ৩৩ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা। পাকিস্তানি সেনা বাহিনীকে বিদ্যুতের আলো থেকে বিচ্ছিন্ন করতে ৩০ নভেম্বর টাইম বোমা দিয়ে শহরের কেন্দ্রবিন্দুতে অবস্থিত পাওয়ার হাউস উড়িয়ে দেয় মুক্তিযোদ্ধারা। এতে ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে যায় পাক হানাদার বাহিনী। রাতের আঁধারে বেড়ে যায় গুপ্ত হামলা। পিছু হটতে শুরু করে হানাদাররা। 

৬ ডিসেম্বর রাতে মুক্তিযোদ্ধাদের হামলায় টিকতে না পেরে বাঁকাল, কদমতলা ও বেনেরপোতা ব্রিজ উড়িয়ে দিয়ে পাকিস্তানি বাহিনী থেকে পালিয়ে যায়। ৬ ডিসেম্বর শত্রুমুক্ত হয় দেবহাটা ও কলারোয়া। ৭ ডিসেম্বর জয়ের উন্মাদনায় জ্বলে ওঠে সাতক্ষীরার মুক্তিকামী জনতা। 

সাতক্ষীরা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ইউনিট কমান্ডার মোশারফ হোসেন মশু বলেন, এ দিনে সাতক্ষীরাকে হানাদার মুক্ত করা হয়েছিল। এ দিনটি জেলার মানুষের জন্য গর্বের দিন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আগামীর উন্নয়নশীল দেশ গড়ার প্রত্যয়ে জেগে ওঠার দিন আজ। আজ কোনো কান্না নয়, আজ আনন্দের দিন। রক্তের সিঁড়ি বেয়ে অর্জিত স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার দিন। নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে এবার সাতক্ষীরামুক্ত দিবস পালিত হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর

Best Electronics