আজ আসছেন সুষমা স্বরাজ
SELECT bn_content_arch.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content_arch.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content_arch.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content_arch INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content_arch.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content_arch.ContentID WHERE bn_content_arch.Deletable=1 AND bn_content_arch.ShowContent=1 AND bn_content_arch.ContentID=15274 LIMIT 1

ঢাকা, শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭,   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

আজ আসছেন সুষমা স্বরাজ

 প্রকাশিত: ০৯:২০ ২২ অক্টোবর ২০১৭   আপডেট: ১৯:১৯ ২৩ অক্টোবর ২০১৭

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

চব্বিশ ঘণ্টার ঝটিকা সফরে আজ রোববার দুপুরে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

আজ দুপুরে ঢাকায় পৌঁছার পর বিকালে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ পরামর্শক কমিটির (জেসিসি) বৈঠকে যোগ দেবেন।

সুষমা স্বরাজ ভারতীয় আর পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন।

জেসিসির বৈঠকে দুই দেশের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সকল ইস্যু নিয়ে আলোচনা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ পর্যালোচনা এবং সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্র নিয়ে আলোচনা হবে। সবকিছুর উপরে দ্বিপাক্ষিক ইস্যুর বাইরে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে সুষমার এই সফরে।

কূটনৈতিক সূত্র জানায়, গত ২৫ আগস্টের পর থেকে এ পর্যন্ত বাংলাদেশ মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে আসা ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে মানবিক কারণে আশ্রয় দিয়েছে। বাংলাদেশ চায় স্বল্পতম সময়ের মধ্যে এসব রোহিঙ্গা নিরাপদে স্বদেশে ফিরে যাক। বিশ্ব সম্প্রদায়ও বাংলাদেশের পাশে থেকে এ লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। মিয়ানমারের উপর অনবরত চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে। নিকট প্রতিবেশী ও ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসাবে ভারতকেও এ প্রক্রিয়ায় দেখতে চায় বাংলাদেশ। ভারত রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের পাশে থাকার অঙ্গীকার করেছে। দফায় দফায় ত্রাণ সহায়তা দিয়েছে। এখন বাংলাদেশের প্রত্যাশা ভারত সক্রিয় ও বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখুক।

সূত্র জানায়, জেসিসির বৈঠকে অভিন্ন সন্ত্রাস ও উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে যৌথ দৃঢ় পদক্ষেপ তথা নিরাপত্তা সহযোগিতা, জ্বালানি, বাণিজ্য, সীমান্ত যোগাযোগ, পানি ব্যবস্থাপনা, কানেকটিভিটিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা হবে। ভারত গত বছরে বাংলাদেশকে ৮ বিলিয়ন ডলারের ঋণ দিয়েছে। শিপিং, বিদ্যুত্, রেল, যোগাযোগ অবকাঠামোসহ বিভিন্ন খাতে এ ঋণ ব্যবহূত হচ্ছে।

২০১১ সালে তত্কালীন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং-এর ঢাকা সফরের সময় দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে আলোচনার জন্য জেসিসি কাঠামো রূপ পায়। এবার জেসিসির চতুর্থ বৈঠক ঢাকায় বসছে।

গত এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নয়াদিল্লী সফরের সময় দু’দেশের মধ্যে সই হওয়া ১১টি চুক্তি ও ২৪টি সমঝোতা স্মারকের বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হবে।

আজ দুপুর দুইটায় সুষমা স্বরাজ বিশেষ বিমানযোগে ঢাকায় কুর্মিটোলায় বঙ্গবন্ধু বিমান ঘাঁটিতে এসে পৌঁছলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী স্বাগত জানাবেন। বিকাল চারটায় হোটেল সোনারগাঁও-এ জেসিসির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। সন্ধ্যায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত্ করবেন সুষমা স্বরাজ। রাতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আহূত নৈশভোজে যোগ দেবেন।

জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ আজ রাতে ও আগামীকাল সকালে বিএনপি চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া সুষমা স্বরাজের সঙ্গে সাক্ষাত্ করবেন। সোমবার সকালে তিনি বারিধারায় ভারতীয় হাইকমিশনে ভারত সরকারের অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। দুপুরে বিশেষ বিমানযোগ নয়াদিল্লীর উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ