Alexa আইসিইউ নেই কুমেক হাসপাতালে

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯,   আশ্বিন ৩০ ১৪২৬,   ১৫ সফর ১৪৪১

Akash

আইসিইউ নেই কুমেক হাসপাতালে

 প্রকাশিত: ১৭:১৯ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেই কোনো ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) বা নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র। ফলে সংকটাপন্ন রোগীদের পাঠানো হয় বেসরকারি হাসপাতালে। কিন্তু অবহেলিত ও দরিদ্র রোগীদের এখানেই পড়ে থাকতে হয়। অথবা চলে যেতে হয় শেষ ঠিকানায়।

বৃহত্তর কুমিল্লা ও বৃহত্তর নোয়াখালির ৬ জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। পাঁচশ’ শয্যাবিশিষ্ট এ হাসপাতালে নেই ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) বা নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র। দ্রুত কুমেক হাসপাতালে আইসিইউ চালু করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন সচেতন নাগরিকরা।

জানা যায়, ৫০০ শয্যার কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন প্রায় ৭০০-৮০০ জনকে চিকিৎসা দেয়া হয়। এছাড়াও প্রতিদিন বহু রোগী চিকিৎসা নিয়ে থাকেন বর্হিবিভাগে।

বৃহত্তর এ হাসপাতালে জরুরি বিভাগ, ক্যাজুয়ালিটি, বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি, গাইনি, শিশু, পুরুষ, মহিলা, নাক-কান-গলা, অর্থপেডিক্স ও হৃদরোগ বিভাগসহ প্রায় সব বিভাগ চালু রয়েছে। কিন্তু এখনো চালু করা হয়নি আইসিইউ বিভাগ। মুমূর্ষু রোগীদের জন্য আইসিইউ বিভাগ চালু করা সময়ের দাবি।

সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) কুমিল্লার সাবেক সভাপতি ও সু-শাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) কুমিল্লার সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর মাসুম বলেন, চট্টগ্রাম বিভাগে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পর সবচেয়ে বড় স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। বিশাল এ হাসপাতালে আইসিইউ শুধু জরুরি নয়, অতীব জরুরি। কারণ, মুমূর্ষু রোগীদের জন্য ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটের বিকল্প নেই।

বাংলাদেশ জাতীয় যক্ষ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব) কুমিল্লার সাধারণ সম্পাদক ও কুমিল্লার সাবেক ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. গোলাম শাহজাহান বলেন, ৯০ দশকের শুরুতে আমি কুমেক হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ড সহকারী রেজিস্ট্রার ছিলাম। তখন থেকেই একটি আইসিইউর অভাব বোধ করছিলাম। যদিও তখন স্বাস্থ্যসেবার এতটা আধুনিকায়ন হয়নি। আমি মনে করি কুমেকে আইসিইউ আনা খুবই দরকার। তাহলে এ অঞ্চলের বিশেষ করে গরীব রোগীদের জন্য অনেক সহায়ক হবে।

কুমেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. স্বপন কুমার অধিকারী বলেন, এখানে আইসিইউ চালুর জন্য যথেষ্ট জায়গা আছে। সরকার মেশিনের ব্যবস্থা করলে আমরা দ্রুতই চালু করতে পারবো। এ ব্যাপারে আমরা অধিদফতরে চিঠি দিয়েছি। আইসিইউ চালুর জন্য আমি নিজে ঢাকা গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সরাসরি কথা বলেছি। আশা করি এখানে শিগগিরই আইসিইউ চালু হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ/এমআরকে