অ্যাম্বুলেন্স যেতে রাস্তা ফাঁকা করে দিলো লাখো বিক্ষোভকারী
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=112956 LIMIT 1

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ৩০ ১৪২৭,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

অ্যাম্বুলেন্স যেতে রাস্তা ফাঁকা করে দিলো লাখো বিক্ষোভকারী

নিউজ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:০০ ১৯ জুন ২০১৯   আপডেট: ০১:০২ ১৯ জুন ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

হংকংয়ে প্রত্যর্পণ বিল নিয়ে লাখো মানুষ বিক্ষোভ করছে গত কয়েক দিন ধরে। সেই বিক্ষোভের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যাতে দেখা যাচ্ছে, একটি অ্যাম্বুলেন্সকে যাওয়ার পথ তৈরি করে দিতে লাখো বিক্ষোভকারী রাস্তা ছেড়ে দিচ্ছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে গত রোববার। গোটা দেশে এ বিক্ষোভ যখন কিছুটা সহিংস রুপ ধারণ করেছে সে বিক্ষোভেই এরকম একটা ঘটনা। একটি অ্যাম্বুলেন্স আসতে দেখে রাস্তা থেকে চুপচাপ সরে যেতে থাকেন বিক্ষোভকারীরা। পরে অ্যাম্বুলেন্সটি লাখো মানুষের মাঝখান দিয়ে গন্তব্যে চলে যায়।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বিক্ষোভকারীরা সবাই শান্ত হয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি যাওয়ার পথ তৈরি করে দিচ্ছেন। যে যেভাবে পারছেন সাহায্য করছেন। তাদের এমন সহযোগিতার কারণে কঙ্খিত গন্তব্যে পৌঁছাতে অ্যাম্বুলেন্সটিকে কোনো বেগ পেতে হয়নি। অ্যাম্বুলেন্সটি চলে যাওয়ার পুনরায় তারা বিক্ষোভ শুরু করেন।

একজন বিক্ষোভকারী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেয়ার প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু সেখানে তখন বিক্ষোভ করছেন ২০ লাখেরও বেশি মানুষ। তাই সহজে অ্যাম্বুলেন্সটিকে ভেতরে আনা এবং গন্তব্যে যাওয়ার পথ তৈরিতে সমস্যা তৈরি হলে সমন্বিতভাবে এ পদক্ষেপ নেয় বিক্ষোভকারীরা।

মঙ্গলবার দেশটির নেতা তথা প্রধান নির্বাহী ক্যারি লাম প্রত্যর্পণ আইনটি নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন। কেননা ওই আইনটি পাস করতে গেলেই গোটা দেশ প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে। বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে এর আগে বিলটি অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

প্রস্তাবিত ওই বিলে তাইওয়ান, ম্যাকাউ বা চীনের মূলভূখণ্ডে ফৌজদারি অপরাধে অভিযুক্ত হংকংয়ের বাসিন্দাদের সেসব স্থানে প্রত্যর্পণের সুযোগ রাখা হয়েছিল। আইনটি ব্যবহার করে চীন হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থি রাজনীতিকদের ওপর দমনপীড়ন চালাতে পারে এমন আশঙ্কা থেকেই বিক্ষোভ শুরু করেন ১০ লাখের বেশি মানুষ।

১৯৯৭ সালে যুক্তরাজ্য থেকে হংকং চীনের কাছে পুনরায় হস্তান্তরিত হওয়ার পর শহরে এটাই সবচেয়ে বড় আন্দোলন। বেইজিং সমর্থিত প্রত্যর্পণ বিল বাস্তবায়নের পরিকল্পনা থেকে সরে আসার জন্য সরকারের ওপর যথাসাধ্য চাপ প্রয়োগ করতেই পথে নেমেছে বিক্ষুব্ধ জনতা। তারা এখন নেতাদের পদত্যাগ চাচ্ছে।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ