Alexa অসুস্থ স্বামীকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গেলেন স্ত্রী!

ঢাকা, রোববার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২ ১৪২৬,   ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

অসুস্থ স্বামীকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গেলেন স্ত্রী!

 প্রকাশিত: ১৭:৪৯ ৩ জুন ২০১৭  

আবারও আলোচনায় উঠে এল ভারতের সরকারি হাসপাতালগুলোর অমানবিক চিত্র। এবার হুইল চেয়ার না পেয়ে অসুস্থ স্বামীকে পা ধারে হাসপাতালের মেঝে দিয়ে টেনে  হিঁচড়ে স্ক্যান করাতে নিয়ে গেলেন স্ত্রী।   ঘটনাটি কর্ণাটকের এক সরকারি হাসপাতালের। ভারতীয় বাংলা পত্রিকা এবেলায় প্রকাশিত এক প্রতিরেবদনে জানানো হয়েছে, গত ২৫ মে ৭৫ বছর বয়সী আমির ফুসফুসের সমস্যা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ওই হাসপাতালের জেনারেল ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছিলেন। বেশ কয়েকটি পরীক্ষার পরে চিকিৎসকরা তার তলপেটের স্ক্যান করাতে বলেন। তার স্ত্রী ফামিদা স্বামীকে স্ক্যান করাতে নিয়ে যাওয়ার জন্য হুইল চেয়ার চাইলে তার কাছ থেকে ৫০ টাকা ঘুষ চায় হাসপাতাল কর্মীরা। ঘুষ দিতে অস্বীকার করায় হুইল চেয়ার পাননি ফামিদা। বার বার অনুরোধ করা সত্ত্বেও হাসপাতালের কর্মীরা কোনও সাহায্য করেননি ওই অসহায় দম্পতিকে। ফলে বাধ্য হয়েই স্বামীকে টানতে টানতে স্ক্যান করাতে নিয়ে যেতে হয় তাকে। এ ভাবে নিয়ে যাওয়ায় কোমরে চোট পেয়েছেন বৃদ্ধ আমির। গত ৩১ মে-র ওই ঘটনার ভিডিও এর মধ্যেই সাড়া ফেলেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এ ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই ঘটনার জন্য এর মধ্যেই তিনজন নার্সকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। প্রয়োজনের থেকে বেশি সংখ্যায় হুইল চেয়ার বা স্ট্রেচার থাকা সত্ত্বেও ওই বৃদ্ধ দম্পতিকে হয়রানির শিকার হতে হল বলে তারা দুঃখ প্রকাশ করেছে। রাজ্যের চিকিৎসা শিক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী শরণপ্রকাশ পাতিল জানান, তিনি এ ঘটনায় মর্মাহত। তিনি এ ব্যাপারে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী রমেশ কুমার জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এই ঘটনার জন্য ওই রোগীর পরিবারের অসহিষ্ণুতাকেই দায়ী করেছেন। ডেইলি বাংলাদেশ/এসএইচ