অশ্লীলতার জন্য নিজ দেশে নিষিদ্ধ, ভিন দেশে পুরস্কৃত!

ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৬ ১৪২৬,   ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

অশ্লীলতার জন্য নিজ দেশে নিষিদ্ধ, ভিন দেশে পুরস্কৃত!

 প্রকাশিত: ১৩:৪৫ ১৮ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ১৩:৪৫ ১৮ জুলাই ২০১৮

ছবি

ছবি

অশ্লীলতা, সমকামী, যৌনতার কারণে ভারতে বেশ কয়েকটি সিনেমাতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল দেশটির সেন্সর বোর্ড। অবশ্য কিছুদিন পর সেই নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে কয়েকটি ছবি মুক্তি পেলেও অন্যগুলো আলোর মুখ দেখেনি।

ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের জন্য এরকম কিছু সিনেমার নাম দেয়া হল:

ইউআরএফ প্রফেসর: 
আপত্তিকর দৃশ্য ও অশ্লীল ভাষার কারণ দেখিয়ে সিনেমাটি নিষিদ্ধ করা হয়। ডার্ক কমেডি ঘরানার এই ছবি দেশের বাইরে অসংখ্য পুরস্কার পেয়েছে।


ব্যান্ডিট কুইন: 

যৌনদৃশ্য, শেখর কাপুরের ছবিটি ফুলন দেবীর জীবন নিয়ে নির্মিত। অশ্লীল ভাষার ব্যবহারের কারণে দিল্লি হাইকোর্ট ছবির মুক্তি ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। ছবি নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন ফুলন দেবীও। যদিও কান চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কৃত হয়েছিল এটি।


কামাসূত্রা: 

দেশের বাইরে পুরস্কৃত হলেও ছবিটি ভারতে মুক্তি পায়নি। অতিরিক্ত যৌন দৃশ্য ব্যবহারের কারণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারতের সেন্সর বোর্ড। পরে ছবিটি বিভিন্ন দেশে প্রদর্শিত এবং পুরস্কৃতও হয়েছিলো। 


পিঙ্ক মিরর: 

শ্রীধর রঙ্গায়নের সিনেমাটিতে সমকামিতা দেখানোর জন্য ২০০৩ সালে ছবিটি নিষিদ্ধ করা হয়। আর সেই নিষেধাজ্ঞা এখনো জারি রয়েছে। 


আনফ্রিডম: 

উভকামী একজন পুরুষের কাহিনী দিয়ে তৈরি হয় এ সিনেমাটি। লেসবিয়ান দুই নারীর সম্পর্কও ছিল। তবে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার আশঙ্কা ও বিভিন্ন যুক্তিতে ২০১৫ সালে রাজ অমিত কুমার পরিচালিত ছবিটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে সেন্সর বোর্ড।


ফায়ার: 

এ ছবিটিতে দুই নারীর মধ্যে সমকামিতার সম্পর্ক দেখানো হয়েছিল। শাবানা আজমি ও নন্দিতা দাশকে প্রাণনাশের হুমকিও দেয়া হয়। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও ধর্মীয় গোষ্ঠীর আপত্তিতে মুক্তির পরে নিষিদ্ধ করা হয় ছবিটি।


সিনস: 

অতিরিক্ত যৌনদৃশ্যের কারণে ছবিটি আটকে যায় সেন্সর বোর্ডে। বিনোদ পাণ্ডের ছবিটি কেরালার একজন যাজকের সঙ্গে এক নারীর সম্পর্কের কাহিনী। ক্যাথলিক সম্প্রদায় ছবিটি নিয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানায়।


ছত্রাক: 

২০১১ সালে অতিরিক্ত যৌনদৃশ্যের ব্যবহার ও নগ্নতার কারণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় বিমুক্তি জয়সুন্দর পরিচালিত বাংলা ছবিটির ওপর। বিতর্ক তৈরি হয় পাওলি দামের চরিত্রায়ন নিয়েও।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস