অবশেষে নিখোঁজ সন্তান দাবিদার প্রতারক আটক

ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ২০ ১৪২৭,   ১২ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

অবশেষে নিখোঁজ সন্তান দাবিদার প্রতারক আটক

সিলেট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:১৩ ২৩ মে ২০১৯   আপডেট: ০৩:৫৭ ২৩ মে ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

হারিয়ে যাওয়া সন্তানকে বুকে ফিরে পেতে আশা নিয়ে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেন মা-বাবা। এমন বিজ্ঞাপনের সুযোগ একাধিকবার কাজে লাগায় এক প্রতারক। অবশেষে তাকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার সিলেটের জকিগঞ্জের কুশিয়ারা নদীর তীর থেকে প্রতারক মো. মনিরকে আটক করা হয়।

জকিগঞ্জ থানার এসআই সৈয়দ ইমরোজ তারেক বলেন, ২০০৬ সালের ১৩ নভেম্বরে সিলেটের পুলিশ লাইন উচ্চ বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র মাসিয়াত চৌধুরী নিখোঁজ হন। বাবা জকিগঞ্জের বীরশ্রী ইউপির লিয়াতকপুর গ্রামের প্রবাসী মোস্তাক আহমদ চৌধুরী ছেলের শোকে দেশে ফিরে আসেন। করেন অপহরণ মামলা। তবে ছেলে জীবিত না মৃত এখনো জানেন না তিনি। ছেলেকে ফিরে পেতে নানা তদবির শেষে স্থানীয় পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেন বাবা। আর সেই সুযোগ কাজে লাগায় মনির। সে মাসিয়াতের পরিচয় দিয়ে জকিগঞ্জে চলে আসে। নিতে থাকে সুযোগ-সুবিধা।

তিনি আরো বলেন, মনির মোস্তাক দম্পতির কাছে আসলে নিজের ছেলে ভেবে খুশি হন তারা। তবে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বিষয়টি সহজে নেননি। সন্দেহের এক পর্যায়ে সোমবার মনিরকে নিয়ে জকিগঞ্জ থানায় আসেন মোস্তাক চৌধুরী ও তার স্বজনরা। সবাই থানায় ঢুকলেও চতুর মনির থানায় না ঢুকে পালিয়ে যেতে চেষ্টা করে। তবে কুশিয়ারা নদীর তীর থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

এসআই বলেন, আড়াই বছর আগে একইভাবে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে চট্টগ্রামের আনোয়ারা থানার জুইদন্ডী ইউপির জুইদন্ডী শামমাঝিপাড়া গ্রামের প্রবাসী ইউসুফ আলীকে বাবা ও তার স্ত্রীকে মা ডেকে সন্তানের সুযোগ সুবিধা নেয়। এই তথ্য তারা আমাকে জানিয়েছেন। প্রতারক মনির খুবই ধৃর্ত। তার প্রকৃত ঠিকানা পুলিশ জানতে পারেনি। এর মধ্যে সে সিলেটের বিশ্বনাথ ও সুনামগঞ্জের ছাতকে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে একাধিক পরিবারে অবস্থান করেছে।

সিলেটের অ্যাডিশনাল এসপি (জকিগঞ্জ সার্কেল) সুদীপ্ত রায় বলেন, আটক মনির বিভিন্ন জায়গায় প্রতারণা করেছে। জকিগঞ্জে আশ্রয় নেয়া ওই পরিবারের সদস্যদের সন্দেহের ভিত্তিতে থানায় আনা হলে প্রকৃত রহস্য উদঘাটন হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ