Alexa অপহরণের ৭ মাস পর বাসায় চিকিৎসক

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৬ ১৪২৬,   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

অপহরণের ৭ মাস পর বাসায় চিকিৎসক

 প্রকাশিত: ০৬:১১ ১ জুন ২০১৭  

রাজধানী ঢাকা সাইন্স ল্যাবরেটরি মোড় থেকে অপহরণের সাড়ে সাত মাস পর ডা. ইকবাল মাহমুদের খোঁজ মিলেছে। বুধবার (৩১ মে) রাতে চোখ বাঁধা অবস্থায় লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের গরু বাজার এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা। পরে তারা অপহৃতকে চিনতে পেরে তার বাবা এ কে এম নুরুল আলমকে বিষয়টি জানায়। নুরুল আলম জানান, লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের গরুর বাজারে দুর্বৃত্তরা তার ছেলে ডা. ইকবালকে চোখ বাঁধা অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। স্থানীয় লোকজন রাস্তার পাশে চোখ বাঁধা অবস্থায় তাকে পড়ে থাকতে দেখে তাকে খবর দেয়। পরে তাকে উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে আসেন তিনি। তিনি আরও জানান, ডা. ইকবাল মাহমুদ শারীরিকভাবে অসুস্থ, কারও সাথে কোনো কথা বলছেন না। এর আগে তার ছেলে ডা. ইকবাল মাহমুদকে অপহরণের পর থেকে চোখ বাঁধা অবস্থায় একটি ছোট ঘরে ফেলে রাখেছিল অপহরণকারীরা। ৭ মাস ১৭ দিন চোখ বাঁধা অবস্থায় ছিল সে। চোখ বাঁধা অবস্থায় তাকে খাবার দেওয়া হত বলে জানান তিনি। তিনি নিজ ছেলেকে সাড়ে ৭ মাস পর জীবিত ফিরে পেয়ে খুশি প্রকাশ করেছেন। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১৪ অক্টোবর রাত সাড়ে ৩টায় বাস থেকে সাইন্স ল্যাবরেটরি মোড়ে নামেন ডা. ইকবাল মাহমুদ। এ সময় কয়েকজন যুবক অস্ত্রের মুখে তাকে অপহরণ করে সাদা মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। ওইদিন রাত সাড়ে ১০টায় লক্ষ্মীপুর হাসপাতাল রোডের ১৯৯ বকুল কটেজে তার নিজ বাসা থেকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ট্রেনিংয়ে অংশ নিতে বাসা থেকে বের হন তিনি। বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এনেসথেসিয়ার ওপর প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন ইকবাল মাহমুদ। ২৮তম বিসিএস এ উত্তীর্ণ হয়ে ইকবাল মাহমুদ মেডিকেল অফিসার হিসেবে স্বাস্থ্য বিভাগের মহাখালীতে কর্মরত ছিলেন। লক্ষ্মীপুরে ভাল চিকিৎসক হিসেবে সুনাম আছে তার। ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই