‘অপরিচিতিকে দুর্বলতা’ হিসেবে কাজে লাগাতে চান আলজারি জোসেফ

ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ১৯ ১৪২৭,   ১১ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

‘অপরিচিতিকে দুর্বলতা’ হিসেবে কাজে লাগাতে চান আলজারি জোসেফ

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:৪০ ৩০ জুন ২০২০  

ক্যারিবীয় পেসার আলজারি জোসেফ

ক্যারিবীয় পেসার আলজারি জোসেফ

মহামারি করোনাভাইরাসের মধ্যে ক্রিকেটকে মাঠে ফিরাতে ইংল্যান্ড সফর করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজকে সামনে রেখে সুবিধা আদায়ের লক্ষ্যে ‘নিজের অপরিচিতিকে দুর্বলতা’ হিসেবে কাজে লাগাতে চান ক্যারিবীয় পেসার আলজারি জোসেফ।

সম্প্রতি আন্ত:স্কোয়াড ওয়ার্ম আপে কিছুটা আগ্রাসী বোলিং দেখে জো রুট ঘোষণা করেছে ক্যারিবীয় এই দলটি দুর্দান্ত। যা নিয়ে সপ্তাহ জুড়ে চলেছে নানান জল্পনা-কল্পনা। সপ্তাহের শুরুতে ক্যারিবীয় কোচ ফিল সিমোন্স তাদের দলের মুল খেলোয়াড় হিসেবে আলজারি জোসেফের নামটি উল্লেখ করেছিলেন। ফলে শ্যানন গাব্রিয়েল, কেমার রোচ ও জেসন হোল্ডার থাকার পরও ক্যারিবীয় পেস আক্রমনে তৃতীয় শক্তি হিসেবে আবির্ভুত হতে যাচ্ছেন জোসেফ। তবে নিজের ‘অপরিচিতি’ সুবিধাকে স্বাগতিকদের দূর্বলতা হিসেবে কাজে লাগাতে চান তিনি।

জোসেফ বলেন, ‘দলের সিনিয়র তিন পেসার আমার চেয়ে অনেক বেশী অভিজ্ঞ। আমি নিজেকে নিয়ে বেশী ভাবি না। দল আমাকে শুধু ‘অপরিচিতির দূর্বলতা’ হিসেবে কাজে লাগাতে চায়।  আমার কাজ হচ্ছে মাঠে এসে ওই বোলারদের সহযোগিতা করা। এবং প্রতিপক্ষ দলকে চাপে রাখা। এখানে বয়সের কোন বিষয় নেই। তবে আমি যেসব ম্যাচে খেলেছি তা দিয়ে বাকী তিনজনের সঙ্গে অবশ্যই তুলনামুলক বিশ্লেষন হবে’।

জোসেফ এ পর্যন্ত যে নয়টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন তার মধ্যে চারটি টেস্টই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ৭ ইনিংসে তিনি ৯০ ওভারেরও কম বোলিং করেছেন। তারপরও উইন্ডিজ পেসাররা মনে করেন ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের কাছে তিনি এখনো খুব একটা পরিচিত নন।

জোসেফ বলেন,‘ আমি এই দুর্বলতাকেই সুযোগ হিসেবে নেব। আমি আামার যোগ্যতা সম্পর্কে জানলেও তারা তা হয়তো জানে না। তবে দিনের ম্যাচে আমি যদি একবার টার্ন পাই এবং সেটিকে কাজে লাগাতে পারি, তাহলে অন্যদের ছাড়িয়ে শীর্ষে পৌছে যেতে পারব’।

২০১৭ সালে ইংল্যান্ড সফরকারী ক্যারিবীয় দলেও ছিলেন জোসেফ। তবে তিনি শুধু একটি মাত্র টেস্টে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন এবং ২২ ওভার বল করে কোন উইকেট পাননি।

তবে জোসেফ মনে করেন এবার তিনি সেরা অবস্থায় আছেন। অনুশীলন ম্যাচে তিনি ধারাবাহিক বোলিং করে যাচ্ছেন এবং আশা করছেন আগামী ৮ জুলাই হ্যাম্পশায়ারে সিরিজের প্রথম টেস্টেও তিনি বর্তমানের মত আঘাত হানতে পারবেন।  

জোসেফ বলেন,‘ আমি শুধু ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই। অনুশীলন ম্যাচে মনে হয় কিছুটা ভাল বোলিং করেছি। তাই প্রথম ম্যাচেও আমি এর পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চাই। ২০১৭ সালের সফরটি ছিল আমার কাছে বড় একটি শিক্ষামূলক অভিজ্ঞতা। সেটি ছিল ইংল্যান্ডে আমার প্রথম সফর। সুতরাং এখানে এখন আমি কিছুটা হলেও অভিজ্ঞ। এখানকার কন্ডিশনে কিভাবে বল করতে হয় তা আমি জানি।

ক্যারিবীয় অঞ্চলের তুলনায় এখানে বল বেশী কার্যকর। এখন আমার জন্য শুধু সামান্য মানিয়ে নেয়ার ব্যাপার। এর বেশী কিছু নয়। শুধু একটু মানানোর বিষয়’।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস