Alexa অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

ঢাকা, বুধবার   ২১ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৭ ১৪২৬,   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

 প্রকাশিত: ০০:২৪ ২২ ডিসেম্বর ২০১৭  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

রাজধানীর পল্লবী থানাধীন কালশী এলাকায় আসমা আক্তার রেবু (২৬) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে তার স্বামী পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে অভিযুক্ত পরিবারের দাবি- পিটিয়ে নয়, আত্মহত্যার ঘটনা এটি।

বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে। এর আগে, বুধবার রাতে কালশীর ই-ব্লকের ২নং সড়কের ৭৮ নম্বর বাসায় বেধড়ক পিটুনিতে রক্তাক্ত হয় রেবু।

নিহতের বাবার বাড়ি বরিশালে। ঘটনা জানাজানি হবার পর স্বামীর বাড়িঘর ঘেরাও করে ভেঙে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। নিহতের স্বামী বুলবুল এর আগেও বিবাহ করেছিলেন। তবে সংসার টেকেনি। নিহতের শ্বশুরের নাম আব্দুল ছালেক।

স্থানীয়রা জানান, রেবু ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেনি। আত্মহত্যার নাটক সাজানো হয়েছে। তাকে মধ্যরাতে শাশুড়ি ও ননদের সহযোগিতায় স্বামী বুলবুল বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত করে। মারধরের কষ্টে চিৎকার চেঁচামেচি করলে এলাকাবাসী এগিয়ে যায়। কিন্তু শ্বশুর-জামাই কেউ গেট খুলে দেয়নি। পিটুনিতেই তিনি মারা যান। তিনি গর্ভবতী ছিলেন। পরদিন বৃহস্পতিবার তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দাদন ফকির বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে অভিযোগ পেয়েছি ওই নারী আত্মহত্যা করেছে। তবে প্রতিবেশী ও এলাকাবাসীর দাবি ওই নারীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ওই নারীর দেড় বছরের সন্তানও রয়েছে। তিনি গর্ভবতী কি না নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলেই সব পরিষ্কার হবে।

ওসি আরো জানান, এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে স্বামী বুলবুল, শ্বশুর আব্দুল ছালেক ও ননদ লুবনাকে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। নিহতের স্বজনরা আসলে মামলা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই

Best Electronics
Best Electronics