অনলাইনেই আস্থা

ঢাকা, শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭,   ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

অনলাইনেই আস্থা

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:৪০ ১ এপ্রিল ২০২০  

মোবাইলে সংবাদ পড়ছে মানুষ

মোবাইলে সংবাদ পড়ছে মানুষ

করোনাভাইরাসের কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় এক সপ্তাহ ধরে কোনো পত্রিকা যাচ্ছে না। এ কারণে সময়মতো সংবাদ পেতে টেলিভিশন ও অনলাইন গণমাধ্যমেই আস্থা রাখছে মানুষ।

ইন্টারনেট এখন হাতের মুঠোয় আসায় টেলিভিশনের চেয়ে সহজলভ্য হয়ে উঠেছে মোবাইল। এ কারণে অনলাইনে পত্রিকা পড়ার প্রতি বেড়েছে আখাউড়াবাসীর ঝোঁক। বিভিন্ন বয়সী মানুষ বাড়ি-দোকান কিংবা অফিসে বসে মোবাইলেই সারা দুনিয়ার খবরাখবর নিচ্ছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পৌর শহর, তারাগন, দেবগ্রাম, খড়মপুর, মোগড়াসহ আখাউড়ার বিভিন্ন স্থানে অফিস-ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রতিদিন জাতীয় দৈনিক পত্রিকাসহ ৮শ’র বেশি পত্রিকা পাওয়া যেত। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে থমকে গেছে সব। পত্রিকা আসা বন্ধ
হওয়ায় বেড়েছে অনলাইন গণমাধ্যমের চাহিদা। হাতে হাতে মোবাইল, তাই সঙ্গে সঙ্গে জানা যায় দেশ-বিদেশের সব খবর।

পৌর এলাকার তারাগনের চিকিৎসক ডা. ইমাম খান বলেন, কয়েকদিন ধরে পত্রিকা আসছে না। কোনো উপায় না পেয়ে মোবাইল আর টিভিতেই খবর দেখি।

ব্যবসায়ী মো. লিয়াকত হোসেন বলেন, সারা বিশ্বের অবস্থাই খারাপ। তাই খবর জানতে মনটা অস্থির হয়ে থাকে। পত্রিকা না থাকায় মোবাইলেই খবর পড়ি। মাঝেমধ্যে টিভি দেখি।

কলেজছাত্র শিশির আহমেদ বলেন, অনলাইন পত্রিকা ছাড়াও মোবাইলে বিভিন্ন চ্যানেল দেখি। এছাড়া ফেসবুকেও অনেক খবর পাওয়া যায়।

আখাউড়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বলেন, মানুষের খবর জানার একটি বড় মাধ্যম হচ্ছে পত্রিকা। দেশ বিদেশে কখন কী ঘটছে তা জানা যায় পত্রিকার মাধ্যমে। সম্প্রতি করোনাভাইরাসের কারণে পত্রিকা না আসায় বেশিরভাগ মানুষ টিভি ও মোবাইলে আস্থা রাখছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর