অজিদের ২২৩ রানে আটকে দিল ইংলিশরা
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=118661 LIMIT 1

ঢাকা, সোমবার   ১০ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭,   ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

অজিদের ২২৩ রানে আটকে দিল ইংলিশরা

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:১৮ ১১ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ১৯:২৫ ১১ জুলাই ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপের দামামা এখন শেষের দিকে। ফাইনালের মহারণের বাকী আর মাত্র এক ম্যাচ। এর আগে আজ এজবাস্টনে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড। 

শুরুতে ৩ উইকেটের ধাক্কা সামলে আবারো ম্যাচে ফিরেছিল অজিরা। ক্যারি-স্মিথের শতরানের জুটিতে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর আবার ব্যাকফুটে যায় তারা। উঠানামার মধ্য দিয়ে প্রথম ইনিংস শেষ করেছে অ্যারন ফিঞ্চের দল। তবে খেলতে পারেনি পুরো ৫০ ওভার। 

নির্ধারিত কোটার ১ ওভার আগেই অলআউট হওয়া অজিদের সংগ্রহ ২২৩ রান।

এর আগে দিনের শুরুতে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। তবে তার সিদ্ধান্ত ভুল প্রমাণে যেনো মাঠে নামে ইংলিশ বোলাররা। 

ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই আর্চার ফেরান ফিঞ্চকে। মুখোমুখি হওয়া প্রথম বলেই ফিঞ্চ ফেরেন লেগ বিফোর উইকেটে। পরের ওভারেই ওকসের আঘাতে প্যাভিলয়নে ওয়ার্নার। ফিঞ্চ কোন রান না করলেও ওয়ার্নার ৯ রান করেন। পরবর্তী আঘাতও হানেন ক্রিস ওকস। তার বলে বোল্ড আউট হন হ্যান্ডসকম্ব। মাত্র ৪ রানে ফিরে যান খাজার জায়গায় দলে আসা এ ব্যাটসম্যান। 

এরপর দলের হাল ধরেন স্মিথ ও এ্যালেক্স ক্যারি। দুজন মিলে বেশ ভালোভাবেই বিপর্যয় সামাল দেন। পঞ্চাশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন দুজনেই। তবে এমন সময়েই ইংল্যান্ডের আঘাত। আদিল রশিদের বলে ৪৬ রান করে ক্যারির বিদায়ের পরপর রানের খাতা খোলার আগেই আউট হন স্টয়নিস। আবারও দৃশ্যপটে লেগস্পিনার রশিদ। 

ম্যাক্সওয়েলকে সঙ্গে নিয়ে বড় পার্টনারশিপ তৈরীর চেষ্টা করেন স্মিথ। তবে তাদের প্রচেষ্টা ব্যর্থ করেন জোফরা আর্চার। তার বলে ২২ রান করা ম্যাক্সির বিদায়ের পরপরই দ্রুত আরেকটি উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ৬ রান করে আদিল রশিদের বলে আউট হন প্যাট কামিন্স। 

স্টার্ককে সঙ্গে নিয়ে ৫১ রানের জুটি গড়েন স্মিথ। তবে এর পরিসমাপ্তি ঘটে স্মিথের রান আউটের মাধ্যমে। ম্যাচজুড়ে দারুণ খেলতে থাকা স্মিথ ৮৫ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। সঙ্গী বিয়োগে স্কোরবোর্ডে রান জমার আগেই এবার আউট হন মিচেল স্টার্ক। ক্রিস ওকসের তৃতীয় শিকারে পরিণত হওয়ার আগে ২৯ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলেন তিনি। 

শেষ উইকেট জুটিতে ৬ রানের বেশি যোগ করতে পারেনি বেহ্রেনডর্ফ ও লায়ন। মার্ক উড শেষ উইকেট নিয়ে মুড়িয়ে দেন অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস। 

ইংল্যান্ডের হয়ে ৩ উইকেট নেন ওকস ও আদিল রশিদ। এছাড়া ২ উইকেট নেন জোফরা আর্চার। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর 

অস্ট্রেলিয়া ২২৩ (৪৯ ওভার) 
স্মিথ ৮৫, ক্যারি ৪৬
ওকস ২০/৩, রশিদ ৫৪/৩ 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল/সালি