অঙ্কুশের বাড়িতে ঐন্দ্রিলা, কেমন যাচ্ছে নতুন সংসারের ট্রায়াল?

ঢাকা, বুধবার   ২৭ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৭,   ০৩ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

অঙ্কুশের বাড়িতে ঐন্দ্রিলা, কেমন যাচ্ছে নতুন সংসারের ট্রায়াল?

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৫৬ ১৮ মে ২০২০  

অঙ্কুশ এবং ঐন্দ্রিলা

অঙ্কুশ এবং ঐন্দ্রিলা

প্রায় দু’মাস হতে চলল অঙ্কুশের বাড়িতে এসে আটকে পড়েছেন ঐন্দ্রিলা সেন। করোনার বিশেষ পরিস্থিতি ঘোষণা হওয়ার দিন অঙ্কুশের বাড়িতেই ছিলেন অভিনেত্রী। তারপর থেকে বাড়ি ফিরতে পারেননি। তার তাই দু’জনে একসঙ্গে সময় কাটাতে পারছেন। অঙ্কুশের কথায়, এখন ট্রায়াল দিয়ে নিচ্ছি দু’জনে।

ঐন্দ্রিলা অবশ্য বলছেন, আমাদের দু’জনের কোনো দিনই গদগদ প্রেমের সম্পর্ক নয়। একসঙ্গে আড্ডা, ঘোরাফেরা, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে ভালবাসি। এখনো সেটাই করছি। আমি আর মা এখানে এসে আটকে পড়েছি। চলে যাব ভেবেছিলাম। কিন্তু কাকু-কাকিমা (অঙ্কুশের মা-বাবা) কিছুতেই যেতে দিলেন না। এই পরিস্থিতিতে আমাদের একা ছাড়তে চাইছেন না। 

আর সময় কাটছে কী করে? কখনো ঘরের কাজ করে, তো কখনো রান্নাঘরেও টুকিটাকি কাজে সময় কেটে যাচ্ছে ঐন্দ্রিলার। মার্চের শেষেই ইউরোপ টুরে যাওয়ার কথা ছিল দু’জনের। সেটা যাওয়া না হলেও অন্তত একসঙ্গে থাকতে পারছেন তারা। দু’জনেই ওয়েব সিরিজের ভক্ত। তাই অনেকটা সময় কেটে যাচ্ছে সিরিজ দেখে। 

ঐন্দ্রিলার কথায়, আমাদের একসঙ্গে সময় কাটানো মানে সিরিজ দেখা। ‘মানি হাইস্ট’, ‘ক্রিমিনাল জাস্টিস’, ‘অসুর’ এগুলো সব দেখা হয়ে গিয়েছে। আর আমার পোষ্যও যেহেতু এখানে আছে, আমাদের পোষ্যদের নিয়েই অনেকটা সময় কেটে যায়। বিকেলের দিকে ওদের নিয়ে কমপ্লেক্সের নীচে নামি। ওদের একটু হাঁটিয়ে নিয়ে আসি। আর আছে রান্না। এর মধ্যেই প্রায় পাঁচ-ছ’বার কেক তৈরি করেছেন ঐন্দ্রিলা। 

অভিনেত্রী বললেন, অঙ্কুশ ডিম খেতে ভালবাসে বলে ডিম বাড়িতে থাকেই। আর আমরা দু’জনেই ভীষণ চকলেট খাই বলে কেকের উপকরণ সব হাতের কাছেই পেয়ে যাই। তাই কেকটা করছি। এক দিন এগ হোয়াইট বিট করে ওয়াটার পোচ করে একটা রান্না করেছিলাম। ওটা অঙ্কুশের খুব ভাল লেগেছিল। আর আছে নাচ। আমি নাচলে ও ভিডিও করে দিচ্ছে আর ও নাচলে আমি।

অঙ্কুশ আর ঐন্দ্রিলার প্রেমের কাহিনী জানা সবারই। আর এই সময় যে তাদের সম্পর্ক পোক্ত হচ্ছে, তাতে সন্দেহ নেই।  আর এই কোয়ারেন্টাইনেই নতুন সংসারের ট্রায়াল দিয়ে নিচ্ছেন তারা।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস