Exim Bank Ltd.
ঢাকা, বুধবার ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫ পৌষ ১৪২৫

অঘোরী তান্ত্রিকদের ইতিকথা

আহনাফ তাহমিদডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
অঘোরী তান্ত্রিকদের ইতিকথা
ছবি: সংগৃহীত

তাদেরকে হয়তো ছবিতে দেখেছেন কিংবা কালিগোলা কোনো এক রাতে দেখেছেন ভয়াল চলচ্চিত্রে! সাধু বলতে আমরা সচরাচর যাদেরকে বুঝি, এরা তাদের থেকে একটু আলাদা। এরা কোনো মন্দিরে থেকে ঈশ্বরের আরাধনা করে না। তন্ত্র মন্ত্রের জগতে এরা প্রখ্যাত। চরিত্রে রয়েছে বিশেষ কিছু দিক, যা দেখে বিস্ময়ে আপনার চোয়াল ঝুলে যেতে বাধ্য। ভারতে এদের বলা হয় অঘোরী। এদের দেখলে যেমন ভয়ে গায়ের লোম খাড়া হয়ে ওঠে, ঠিক তেমনি কাজকর্মেও রয়েছে অলৌকিকত্বের স্বাদ। আসুন, রহস্যময় এই অঘোরী সাধুদের সম্পর্কে আজ কিছু জেনে নেয়া যাক-

অঘোরীরা শিবের পূজারী

অঘোরীরা পূজা করে শিবের। এছাড়াও মৃত্যুর দেবী কালীসাধনাও করে থাকে এরা। বারানসীর অঘোরী মেরোনাথ এক সাক্ষাৎকারে ফটোগ্রাফার এবং লেখক ডাভোর রস্তুহারকে বলেন, “হিন্দুবাদে প্রত্যেকটি প্রভুর একটিমাত্র রুপ থাকে। বিভিন্ন গোত্র বিভিন্ন দেব দেবীর পূজা করে। তাদের মতো করে নৈবেদ্য প্রদান করে। শিব আর মা কালী যখন ভক্তদের কাছ থেকে বলী আশা করে, তখন ভক্তরা কিন্তু তা মান্য করতে নিরুৎসাহিতা দেখিয়ে থাকে। আমরাই একমাত্র গোত্র, যারা মা কালী এবং শিবের আশামতো নৈবেদ্য প্রদান করে থাকি।”

উচ্ছিষ্ট ভক্ষণ করে

সাধুরা তিনটি বিষয় থেকে নিজেদের দূরে রাখে- মাংস, মদ, এবং যৌনাচার। তবে অঘোরীরা এক্ষেত্রেও ভিন্ন। তারা মনে করে, মা কালী এই তিনটি বিষয়কেই খুব পছন্দ করেন। মাংস যে শুধু পশুর হবে, তা নয়। তারা এক্ষেত্রে কোনো ভেদাভেদ করে না। মানুষের মাংসও তারা ভক্ষণ করে, তবে মৃত। আস্তাকুড় থেকে নোংরা উচ্ছিষ্ট খাবার উঠিয়ে খায় অঘোরীরা। এক্ষেত্রে তারা মনে করে, খাদ্যের ব্যাপারে কোনো ভিন্নাদর্শ থাকা উচিত নয়। মানুষের ফেলে দেয়া উচ্ছিষ্ট, মৃতদেহ, এমনকি মল মূত্রও ভক্ষণ করে অঘোরী সাধুরা।

মৃতদেহের সঙ্গে যৌনাচার

অঘোরীদের মতে, মা কালী যৌনাচারে খুশি হন। তাই তারা খোঁজ করতে থাকে উপযুক্ত একটি মৃতদেহের। সমাধি থেকে সদ্য তাজা লাশ উঠিয়ে এনে তার সঙ্গে শুরু করে অবাধ ও বিকৃত যৌনাচার। মেরোনাথ তার দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, “আমরা যা করি, তা বাইরের বিশ্বের কাছে শুনতে পাগলামী মনে হলেও আমাদের কাছে খুবই নৈমিত্তিক একটি ব্যাপার।নোংরার মাঝে শুদ্ধতা খুঁজে পাওয়া, এটিই আমাদের মূলমন্ত্র। মৃতদেহের সঙ্গে যৌনাচার কিংবা মৃতদেহ ভক্ষণ করার পাশাপাশি একজন অঘোরী যদি ঈশ্বরকে খুঁজে পায়, তাহলে বুঝতে হবে সে সঠিক পথেই আছে।”

কালো জাদুতে বিশ্বাসী

অঘোরীদের মনে আরেকটি বিচিত্র বিশ্বাস রয়েছে। তাদের ধারণা মৃতদেহের সঙ্গে যৌনাচার তাদেরকে দিতে পারে অতুলনীয় ক্ষমতা। গভীর রাতে সমাধিস্থলে যেয়ে অঘোরীরা এই ক্রিয়া সম্পন্ন করে থাকে। এক্ষেত্রে তারা মৃতদেহ কিংবা কোনো এক নারীকে বেছে নেয়। চারদিকে ঢাকের বাদ্য বাজতে থাকে। তবে যার সঙ্গে যৌনক্রিয়া করা হবে, তাকে কোনো ধরনের জোর করা হয় না। নিজেদের ইচ্ছাতেই কাজটি হয়ে থাকে। এভাবে অঘোরীরা মনে করে তাদেরকে মা কালী পৃথিবীতে দেবে অতুলনীয় ক্ষমতার আস্বাদ।

মনে কোনো ঘৃণা নেই

ঘৃণা বিশ্বের বুকে ভালো কিছু বয়ে আনতে পারে না, এটাই অঘোরীদের বিশ্বাস। এমনকি কুকুর বেড়াল গরু ছাগলের সঙ্গে বসে তারা খাবার ভক্ষণ করে থাকে। তারা মনে করে সামান্য প্রাণী তাদের খাবার নষ্ট করছে, এটা ভেবে যদি চিন্তিত হয়ে যায়, তাহলে প্রভু শিবের সঙ্গে কখনো মিলিত হওয়া সম্ভব হবে না। মানুষ তাদেরকে নানাভাবে কটূকথা বলে, হেয় করে। এসব কিছুই অঘোরীরা পাত্তা দেয় না। মানুষকে ঘৃণা করা তাদের স্বভাবে নেই। তারা অনেক উঁচু স্তরের এবং সে স্তরে যেতে এসব বিষয় আমলে না নেয়াই ভালো, এমনটাই বিশ্বাস অঘোরীদের।

খুলিতে পানাহার

একজন অঘোরী তান্ত্রিকের হাতে মানুষের খুলি বা ‘কপাল’ থাকাটা সত্যিকারের পরিচায়ক। অনেক সময় এজন্য এদেরকে কাপালিক বলেও অভিহিত করা হয়। পানিতে যেসব মৃতদেহ ভাসিয়ে দেয়া হয় কিংবা যেসব মৃতদেহ ভেসে ওঠে, তাদের খুলিটা সংগ্রহ করে অঘোরী সাধুরা। এসব খুলিতে করে তারা পানাহার করে, আবার কেউ কেউ ভিক্ষাও চেয়ে থাকে। তখন এই খুলিকে ভিক্ষার পাত্র হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে

সমাধিস্থলে পূজার্চনা

অঘোরীরা সমাধিকে পবিত্র ভূমি বলে বিবেচনা করে থাকে। শুদ্ধ এবং অশুদ্ধ, পবিত্র এবং অপবিত্র, উচিত এবং অনুচিতের মধ্যকার ফারাকটা তারা সমাধিস্থলে নেই বলে মনে করে। এজন্য গভীর রাতে সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়ে, অঘোরীরা একে একে এসে জমায়েত হয় সমাধিক্ষেত্রে। বেজে ওঠে ঢাকের বাদ্যি, গুনগুনিয়ে ওঠে সম্মিলিত কণ্ঠে মন্ত্র।

মানুষের মাংস খাওয়া

বারানসী একটি ঘনবসতিপূর্ণ শহর হওয়া সত্ত্বেও অঘোরীরা এখানে ক্যানিবালিজম বা মানুষের মাংস খাওয়া স্বাভাবিক একটি বিষয়। তাই বলে ভাববেন না যে তারা জীবিতের মাংস খায়। মানুষ মরে যাবার পর তাদেরকে সমাধিস্থ করা হয়। তখন কবর খুঁড়ে দেহ তুলে এনে সেগুলো ভক্ষণ করে অঘোরীরা। মাঝে মাঝে সেগুলো আগুনে ঝলসিয়েও খাওয়া হয়। পর্যাপ্ত মাংস খেয়ে নেবার পর বাকি মৃতদেহের ওপর তারা বসে পূজা শুরু করে, চলে সারারাত। তবে কিছু কিছু অঘোরী রয়েছে যারা পথ থেকে বিচ্যুত হয়ে যায়। তারা জীবিত মানুষের ওপর হামলা করে মাংস খাওয়া শুরু করে। তাই অঘোরীদের এই ধরনের ক্রিয়াকলাপের জন্য বারানসীর মানুষ অনেক বেশি সতর্ক আচরণ করে। সমাধিস্থলেও বাড়ানো হয়েছে সতর্কতা।

নগ্নতাই পছন্দ

অঘোরীরা যখন এক শহর থেকে অন্যশহরে যাতায়াত করে, তখন শরীরে সামান্য একচিলতে কাপড় জড়িয়ে রাখে। তবে বেশিরভাগ সময়েই তারা নগ্ন হয়ে যাতায়াত করে। তারা মনে করে শরীরে কিছু জড়িয়ে রাখা মানেও জাগতিক এই পৃথিবীর সঙ্গে নিজেদের সম্পর্ক স্থাপন করা। কেউ কেউ নিজেদের লজ্জাস্থানে মেখে নেয় ছাই। অঘোরীরা গয়না পরতেও পছন্দ করে। তবে যে সে গয়না নয়। মানুষের মাথার খুলি কিংবা শরীরের বিভিন্ন স্থানের হাড় তারা মালা বানিয়ে গলায় ঝুলিয়ে রাখে।

মারিজুয়ানায় আসক্ত

বেশিরভাগ অঘোরীই মাদক সেবন করে থাকে।এক্ষেত্রে তাদের পছন্দ হচ্ছে মারিজুয়ানা। এটি সেবন করার মাধ্যমে তারা মনে করে এভাবে ঈশ্বরের কাছাকাছি পৌঁছে যাওয়া সহজতর হয়। এই মাদক সেবন করার ফলে যোগব্যায়াম করতে সুবিধা হয় বলে ধারণা তাদের। তবে মারিজুয়ানার মতো একটি মাদক সেবন করার পরও তাদের ব্যবহার খুব শান্ত এবং নম্র থাকে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
ঈশা আম্বানিকে শ্বশুরের আকাশ ছোঁয়া উপহার!
ঈশা আম্বানিকে শ্বশুরের আকাশ ছোঁয়া উপহার!
ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘পিথাই’
ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘পিথাই’
সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদে মুশফিকুর রহিম!
সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদে মুশফিকুর রহিম!
বিয়ে হতে না হতেই গর্ভবতী প্রিয়াঙ্কা!
বিয়ে হতে না হতেই গর্ভবতী প্রিয়াঙ্কা!
কাতলায় সাবধান! হুঁশিয়ারি গবেষকদের
কাতলায় সাবধান! হুঁশিয়ারি গবেষকদের
মা ক্যানসারে আক্রান্ত, ছেলে কেকেআর-এ আকাশছোঁয়া দরে
মা ক্যানসারে আক্রান্ত, ছেলে কেকেআর-এ আকাশছোঁয়া দরে
সানি লিওনের সঙ্গে হিরো আলম!
সানি লিওনের সঙ্গে হিরো আলম!
বই পড়ানো ইউসুফ এখন দুদকে!
বই পড়ানো ইউসুফ এখন দুদকে!
৮৩ জিবি পর্ন ভিডিও উদ্ধার, কারাদণ্ড
৮৩ জিবি পর্ন ভিডিও উদ্ধার, কারাদণ্ড
চারবার গর্ভবতী হয়েছিলেন যুবরাজের স্ত্রী!
চারবার গর্ভবতী হয়েছিলেন যুবরাজের স্ত্রী!
গিন্নিকে বিয়ে করলেন কপিল শর্মা
গিন্নিকে বিয়ে করলেন কপিল শর্মা
বিবাহবার্ষিকীতে শাওনের আবেগঘন স্ট্যাটাস
বিবাহবার্ষিকীতে শাওনের আবেগঘন স্ট্যাটাস
যাদের টাকায় নির্বাচন করবেন হিরো আলম
যাদের টাকায় নির্বাচন করবেন হিরো আলম
নতুন মিরজাফর ড. কামাল-কাদের
নতুন মিরজাফর ড. কামাল-কাদের
নৌকার প্রচারণায় একঝাঁক তারকা
নৌকার প্রচারণায় একঝাঁক তারকা
শরীর দেখিয়ে সানিকে টক্করের চ্যালেঞ্জ পাকিস্তানি মডেলের!
শরীর দেখিয়ে সানিকে টক্করের চ্যালেঞ্জ পাকিস্তানি মডেলের!
ক্ষমতায় গেলে বেকার যুবকদের ভাতা দেয়া হবে : হিরো আলম
ক্ষমতায় গেলে বেকার যুবকদের ভাতা দেয়া হবে : হিরো আলম
মাছ পেতে চাইলে দিতে হবে শরীর, লালসার শিকার নারীরা
মাছ পেতে চাইলে দিতে হবে শরীর, লালসার শিকার নারীরা
পৃথিবীর বুকে দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন
পৃথিবীর বুকে দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন
শিশিরকে আবারো গাড়ি উপহার সাকিবের!
শিশিরকে আবারো গাড়ি উপহার সাকিবের!
শিরোনাম :
ইসিতে ভিন্নমত থাকবে, তবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রাধান্য পাবে: সেতুমন্ত্রী ইসিতে ভিন্নমত থাকবে, তবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রাধান্য পাবে: সেতুমন্ত্রী আজ গোপালগঞ্জের ভাটিয়াপাড়া মুক্ত দিবস আজ গোপালগঞ্জের ভাটিয়াপাড়া মুক্ত দিবস সুপ্রিমকোর্টের অবকাশ শুরু সুপ্রিমকোর্টের অবকাশ শুরু ফতুল্লায় আগুনে একই পরিবারের নয় জন দগ্ধ ফতুল্লায় আগুনে একই পরিবারের নয় জন দগ্ধ