অগ্নিকাণ্ডে অক্ষত পবিত্র কোরআন

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২১ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৬,   ১৫ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

অগ্নিকাণ্ডে অক্ষত পবিত্র কোরআন

 প্রকাশিত: ১৭:০৩ ৯ নভেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৯:০৫ ৯ নভেম্বর ২০১৮

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মহান রাব্বুল আলামীন আল্লাহ তায়ালার কুরতদ দেখলো নোয়াখালীর সুবর্নচর উপজেলার পূব চরবাটা ইউনিয়নের ছমির হাট বাজারের স্থানীয় বাসিন্দারা। 

অগ্নিকাণ্ডে ওই বাজারের ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেলেও অক্ষত রয়েছে মহান রাব্বুল আলামীন আল্লাহ’র বাণী সম্বলিত কয়েকটি পবিত্র কোরআন শরীফ। বর্তমানে পবিত্র কোরআনগুলো স্থানীয় মসজিদের সংরক্ষিত রয়েছে। বিষয়টি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিন গিয়ে জানা গেছে, বুধবার ভোর রাতে ছমির হাট বাজারে একটি চা দোকান থেকে আগুনের সুত্রপাত হয় এবং মুহুর্তের মধ্যে তা চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা সুবর্নচর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার আগেই অন্তত ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্থ দোকানগুলোর মধ্যে ১টি বই দোকান, ১টি রেস্টুরেন্ট, ১টি ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী দোকান, ১টি বাইসাইকেলের দোকান, ১টি ক্লথ স্টোর, ১টি সেলুন দোকান, আগুনের সূত্রপাত হওয়া চা দোকান এবং স্থানীয় মসজিদের ২টি দোকান রয়েছে।

ছমির হাট বাজারের ব্যবসায়ী মো. ফিরোজ আলম জানান, বই দোকান ও মসজিদের দুটি দোকানে একাধিক পবিত্র কোরআন শরীফ ছিলো। সে দোকানগুলোর সব ভষ্মিভূত হলেও পবিত্র কোরআনগুলো ছিলো অক্ষত। যা একটি বিরল ঘটনা।

এদিকে ঘটনার পর সুবর্নচর উপজেলা চেয়ারম্যান আনম খায়রুল আলম সেলিমসহ প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তারা অগ্নিকাণ্ডের স্হান পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা ফয়েজ উল্যাহ বলেন, এটা মহান আল্লাহ’র কুদরত। মহান রাব্বুল আলামীন আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআনে বলেছেন, ‘কোরআন আমার বাণী আর এটা সংরক্ষণের দায়ীত্বও আমার।’

এ ঘটনার মাধ্যমে মহন রাব্বুল আলামীন আল্লাহ তায়ালা সে কথারই প্রতিফলন দেখিয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসকে/আরএজে

Best Electronics