Alexa ছেলের চিকিৎসা করাতে না পেরে মায়ের এ কেমন অভিমান

ঢাকা, শুক্রবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৬ ১৪২৬,   ২১ মুহররম ১৪৪১

Akash

ছেলের চিকিৎসা করাতে না পেরে মায়ের এ কেমন অভিমান

ডেস্ক নিউজ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৯:৫৭ ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৯:৫৮ ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অর্থাভাবে ক্যানসার আক্রান্ত ছেলের চিকিৎসা করাতে না পেরে অভিমানে সাবিনা বেগম নামে এক নারী বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

রোববার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে। সৈয়দপুর থানার  ওসি শাহজাহান পাশা এ তথ্য জানান।

সাবিনা নীলফামারীর সৈয়দপুরে খাতামধুপুর ইউপির খামাতপাড়া এলাকার মনোয়ার হোসেনের স্ত্রী।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, দরিদ্র মনোয়ার হোসেনের তিন ছেলে ও দুই মেয়ে। তাদের মধ্যে মেজো ছেলে সবুজ ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ হয়ে শয্যাশায়ী। অর্থাভাবে তার চিকিৎসা করতে পারছিলেন না মনোয়ার। এ নিয়ে সাবিনার সঙ্গে প্রায়ই বাক-বিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। চরমদুঃখ-কষ্টে দিনাতিপাত করছিল অসহায় পরিবারটি। 

ছেলের চিকিৎসার জন্য যেটুকু সহায়-সম্বল ছিল তা বিক্রি করে শেষ হয়ে গেছে। সমাজের বিত্তশালীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোনও সহযোগিতা না পেয়ে সাবিনা হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন। গত কয়েকদিন যাবৎ তিনি ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া ও কাজ-কর্ম করতে পারছিলেন না।

এ অবস্থায় শনিবার দিবাগত রাতে তিনি বিষপান করেন। ঘুমন্ত অবস্থায় বাড়ির লোকজন তার গোঙানির শব্দ পেয়ে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসক তাৎক্ষণিক তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সেখানে যাওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

পরিবারের লোকজন তাকে বাড়িতে নিয়ে এসে দাফনের প্রস্তুতিকালে খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানা পুলিশ লাশ থানায় নিয়ে যায়। ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

ওসি জানান, লাশ ময়নাতদন্ত করে দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে